ওয়েবডেস্ক: ইতিহাস বলে যে নাথুরাম গডসের গুলিতে নেতিয়ে পড়ার আগে ‘হে রাম’ বলেছিলেন মহাত্মা গান্ধী। কিন্তু ২০০৬ সালে এই প্রসঙ্গে চাঞ্চল্য ফেলে দিয়েছিলেন মৃত্যুর দিন পর্যন্ত গান্ধীর ছায়াসঙ্গী বেঙ্কট কল্যাণম। তখন তিনি বলেছিলেন, মৃত্যুর আগে ‘হে রাম’ গান্ধী উচ্চারণ করেননি। নিজের সে দিনের বক্তব্য থেকে মঙ্গলবার সরে এলেন নবতিপর এই বৃদ্ধ।

১৯৪৩ থেকে মৃত্যুর দিন পর্যন্ত মহাত্মা গান্ধীর ব্যক্তিগত সচিব ছিলেন তিনি। মঙ্গলবার গান্ধীর মৃত্যুর ৭০তম বার্ষিকীতে বলেন, বারো বছর আগে তাঁর করা মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা হয়েছে। তিনি যেটা বলতে চেয়েছিলেন মিডিয়া সেটা তুলে ধরেনি। গান্ধীর মৃত্যুর প্রত্যক্ষদর্শী এই বৃদ্ধ বলেন, “আমি কখনোই বলিনি যে গান্ধীজি ‘হে রাম’ বলেননি। আমি শুধু এটাই বলেছিলাম যে আমি শুনতে পাইনি উনি কী বলেছিলেন।”

গান্ধীর কথা কেন শুনতে পাননি তারও ব্যখ্যা দিয়েছেন বেঙ্কট। তাঁর কথায়, “ওই সময়ে খুব হট্টগোল পড়ে গিয়েছিল। সবাই চিৎকার করেছে যে মহাত্মাকে গুলি করা হয়েছে। আমি কিছুই শুনতে পাইনি। উনি হয়তো ‘হে রাম’ বলেছিলেন কিন্তু আমি শুনতে পাইনি।”

উল্লেখ্য, ২০০৬-এ কেরলের কোল্লামে একটি সাংবাদিক বৈঠকে চাঞ্চল্য ফেলে দিয়ে বলেছিলেন মহাত্মা গান্ধী কখনোই মৃত্যুমুখে ‘হে রাম’ বলেননি। তখন বেঙ্কটের এই কথার তীব্র প্রতিবাদ করেছিলেন গান্ধীর প্রপৌত্র তুষার গান্ধী।

বেঙ্কটের আক্ষেপ, নাথুরাম গডসে মহাত্মাকে একবার মেরেছিল। কিন্তু গান্ধীর দেখানো পথ না মেনে রাজনৈতিক দলগুলি রোজই তাঁকে মারছে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন