budget session ramnath kovind

নয়াদিল্লি: বাজেট অধিবেশনে কেন্দ্রের মূল লক্ষ্য যে তিন তালাক বিল পাশ করানো সেটা ভালো করে বুঝিয়ে দিলেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। সেই সঙ্গে তুলে ধরলেন বিগত এক বছরে কেন্দ্রে সাফল্যের খতিয়ান।

রীতি মেনেই রাষ্ট্রপতির বক্তৃতা দিয়েই সোমবার শুরু হল কেন্দ্রের বাজেট অধিবেশন। শুরুতেই রামনাথ বলেন, “তিন তালাক বিল যদি পাশ হয়, তা হলে নির্ভয়ে বাঁচতে পারবেন মুসলিম মহিলারা।” রাজনৈতিক স্বার্থান্বেষণের জন্যই মুসলিম মহিলাদের কথা কেউ ভাবেনি বলে জানান রামনাথ। এই অধিবেশনেই সেই বিল পাশ হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

বাজেট অধিবেশনের প্রথমাংশ শেষ হবে ৯ ফেব্রুয়ারি। অধিবেশনের পরবর্তী অংশ হবে ৫ মার্চ থেকে ৬ এপ্রিল। বৃহস্পতিবার সাধারণ বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি।

এর পাশাপাশি এক সঙ্গে লোকসভা এবং বিধানসভা নির্বাচন করার ব্যাপারেও সব দলকে ঐকমত্যে আসার বার্তাও দেন রাষ্ট্রপতি। বিগত কয়েক বছরে কেন্দ্রের বিভিন্ন প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন রামনাথ। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ২০২২-এর মধ্যে দেশের সব ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার আশ্বাসও সরকার যে পূরণ করবে, সে ব্যাপারে তিনি আশাবাদী।

কোবিন্দ বলেন, গত সাড়ে তিন বছরে দেশের মুদ্রাস্ফীতির হার কিছুটা হলেও কমেছে। এর জন্য জিএসটি-এর মতো প্রকল্পগুলির প্রশংসাও শোনা যায় তাঁর মুখে।

এ দিকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের কিছু আগে সংসদের বাইরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “বিশ্ব ব্যাঙ্ক এবং আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডার ভারতকে ইতিবাচক চোখে দেখছে।” দেশের গ্রামাঞ্চলের মানুষ, কৃষক, দলিত, আদিবাসী এবং শ্রমিকদের জন্য চিন্তাভাবনা করা উচিত বলে মন্তব্য করেন মোদী।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন