অবশেষে বর্ষাবিদায়ের দিনক্ষণ জানাল আবহাওয়া দফতর

0

ওয়েবডেস্ক: একশো বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশের আবহাওয়া বিষয়ক যাবতীয় তথ্য কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতরের কাছে রয়েছে। সেই তথ্য ঘেঁটে আগেই দফতর জানিয়ে দিয়েছে, এ বছরই সব থেকে দেরিতে বর্ষার বিদায়যাত্রা শুরু হতে চলেছে।

সাধারণত ১ সেপ্টেম্বর উত্তরপশ্চিম ভারত থেকে বিদায় নিতে শুরু করে বর্ষা। কিন্তু এ বছর অক্টোবর পড়ে গেলেও বিদায়ের কোনো চিহ্ন না থাকায় বেশ চিন্তিত হয়ে পড়েন আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা।

বর্ষার বিদায় নিতে দেরি হলে, ঋতুচক্র পালটানোর আশঙ্কা তো রয়েছেই, অর্থাৎ শীত আসতে অনেক দেরি হতে পারে, সেই সঙ্গে আশঙ্কা রয়েছে শীতকালীন চাষে প্রভাব পড়ারও।

তবে অবশেষে বর্ষার বিদায়যাত্রা শুরু করার সম্ভাব্য দিনক্ষণ জানাল আবহাওয়া দফতর। উত্তরপশ্চিম ভারতের আবহাওয়ার পারিপার্শ্বিক পরিস্থিতি বিচার করে এই সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম হয়েছে তারা।

আবহাওয়া দফতরের বক্তব্য, আগামী ১০ অক্টোবর উত্তরপশ্চিম ভারতের রাজস্থান এবং পঞ্জাব থেকে বিদায়যাত্রা শুরু হবে বর্ষার। যা স্বাভাবিকের থেকে ৪০ দিন পর।

সাধারণ ১ সেপ্টেম্বর রাজস্থান থেকে বর্ষা বিদায় নিতে শুরু করলে ৮ অক্টোবর দক্ষিণবঙ্গ থেকে সে বিদায় নেয়। অনেকেই তাই হয়তো ভাবছেন এ বার দক্ষিণবঙ্গ থেকে বর্ষা ১৫ নভেম্বর নাগাদ বিদায় নেবে কি না।

তবে সে সম্ভাবনা নেই। বর্ষার বিদায়যাত্রা এ বার অন্য বারের থেকে প্রচণ্ড দ্রুতগতিতে হতে পারে। তাই ২০ অক্টোবরের আগেও দক্ষিণবঙ্গ থেকে পাততাড়ি গোটাতে পারে মৌসুমী বায়ু।

বর্ষার বিদায়কে নিশ্চিত করার জন্য বেশ কিছু প্রাকৃতিক পরিস্থিতি তৈরি হতে হবে। প্রথমত অন্তত দিন পাঁচেক বৃষ্টিকে একদম কমে যেতে হবে। দ্বিতীয়ত উত্তরপশ্চিম ভারতে তৈরি হতে হবে একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তকে, যে ঘূর্ণাবর্ত হাওয়ার দিক পরিবর্তন করে দেবে।

অর্থাৎ আর্দ্র দখিনা বাতাসের বদলে উত্তুরে হাওয়াকে বইতে শুরু করতে হবে। সেই সঙ্গে আর্দ্রতাকে এক্কেবারে কমে যেতে হবে। এই সব হলেই বর্ষার বিদায় নিশ্চিত।

কিন্তু এ বার সে সবই হয়েছে অনেক দেরিতে। এখনও পর্যন্ত পশ্চিম রাজস্থানে সেই বিপরীত ঘূর্ণাবর্তটি তৈরি হয়নি, যদিও আবহাওয়া দফতরের দাবি রবিবার নাগাদ সেটা তৈরি হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন আজ মহাসপ্তমী, নবপত্রিকা স্নানের মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিক সূচনা পুজোর

৬ অক্টোবরের পর, গোটা উত্তর আর মধ্য ভারত আর সেই সঙ্গে পশ্চিমের গুজরাত আর পূর্বের বিহারে বৃষ্টি কার্যত থেমে যাবে। আর তার ভিত্তিতেই ১০ অক্টোবর শুরু হবে বর্ষার বিদায় যাত্রা।

তবে পশ্চিমবঙ্গে আরও কিছু দিন বৃষ্টি চলবে। পুজোর দিনগুলোতেও বিক্ষিপ্ত ভাবে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। নবমী-দশমীতে বৃষ্টির দাপট কিছুটা বাড়তেও পারে। তবে এ রাজ্যে একটানা বর্ষণের সম্ভাবনা নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.