monsoon forecast 2019
বর্ষার নিয়ে অযথা আতঙ্কিত হতে বারণ করল আবহাওয়া দফতর।

নয়াদিল্লি: এ বছর বর্ষা নিয়ে বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা স্কাইমেটের পূর্বাভাসের উলটো দিকে হাঁটল কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। জানিয়ে দিল বর্ষা মোটামুটি স্বাভাবিকই হবে, অযথা আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।

নববর্ষের দিন সবার নজর ছিল কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতরের দিকে। বর্ষার কী পূর্বাভাস তারা দেয় সেই দিকে তাকিয়ে ছিল গোটা দেশ। কারণ বর্ষার ওপরেই নির্ভর করে সবকিছু। আর কিছুদিন আগে স্কাইমেটের পূর্বাভাসে আরও আতঙ্কিত হয়ে গিয়েছিলেন দেশের মানুষজন। কারণ সেই পূর্বাভাসে পূর্ব ভারত-সহ দেশের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে খরার কথা বলে ছিল। যদিও সেই আশঙ্কার কথা এ দিন উড়িয়ে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

সোমবার বিকেলে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মধ্যে দিয়ে আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে এ বার বর্ষা স্বাভাবিকের ৯৬ শতাংশ হবে। অর্থাৎ স্বাভাবিক মাত্রার থেকে মাত্র চার শতাংশ কম হতে পারে বর্ষা। যদিও এখানে পাঁচ শতাংশ এ দিক-ও দিকের ‘মডেল এরর’ ধরা হয়েছে। অর্থাৎ, আবহাওয়া দফতরের মতে সর্বনিম্ন ৯১ শতাংশ থেকে সর্বোচ্চ ১০১ শতাংশ পর্যন্ত বৃষ্টি হতে পারে এ বার ভারতে।

আরও পড়ুন বছরের প্রথম দিন থেকেই উত্তরোত্তর বাড়বে গরম, স্বস্তির ঝড়বৃষ্টি কবে?

আবহাওয়া দফতরের পরিভাষায় স্বাভাবিকের ৯৬ শতাংশ থেকে ১০৪ শতাংশ পর্যন্ত বৃষ্টি হলে তাকে স্বাভাবিকই ধরা হয়। ৯০ থেকে ৯৬ শতাংশ পর্যন্ত হলে স্বাভাবিকের থেকে কম বৃষ্টি বলা হয়। যদি ৯০ শতাংশের কম বৃষ্টি হয়, তা হলে বলা হয় অপর্যাপ্ত। আর যদি ১০৪ শতাংশের বেশি হয়, তাকে বলা হয় বেশি বৃষ্টি।

এ দিন আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে স্বাভাবিক বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ৩৯ শতাংশ। স্বাভাবিকের থেকে কম বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে ৩২ শতাংশ। অপর্যাপ্ত বৃষ্টির সম্ভাবনা ১৭ শতাংশ এবং স্বাভাবিকের বেশি বৃষ্টির সম্ভাবনা ১২ শতাংশ। সেই সঙ্গে জানানো হয়েছে, এ বার এল-নিনোর সম্ভাবনা থাকলেও, দেশে তার প্রভাব খুব একটা বেশি পড়বে না।

ভারতের কোন অঞ্চলে কত বৃষ্টি হবে, সেই তথ্য এখনও প্রকাশ করেনি আবহাওয়া দফতর। তবে একটা কথা তারা জানিয়ে দিয়েছে যে এ বার গোটা দেশের সমপরিমাণে বৃষ্টি হবে। অর্থাৎ কোথাও মাত্রাতিরিক্ত বেশি বা কোথাও মাত্রাতিরিক্ত কম বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা নেই।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here