EWS
সরাসরি নিযুক্ত কর্মীরা

ওয়েবডেস্ক: উচ্চবর্ণদের জন্য আর্থিক ভাবে পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায় অর্থাৎ ইকনোমিক্যালি উইকার সেকশন (ইডব্লিউএস)-র জন্য ১০% সংরক্ষণ নীতি বাস্তবায়িত করার নির্দেশ জারি করল ডিপার্টমেন্ট অব পাবলিক সেক্টর এন্টারপ্রাইজেস। ফেব্রুয়ারি মাসের ১ তারিখ থেকে এই সংরক্ষণ কার্যকর করা হবে।

প্রসঙ্গত, সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে সরকারি চাকরি আর উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে উচ্চবর্ণের সম্প্রদায়ের ১০ শতাংশ সরক্ষণের বিষয়টি রাষ্ট্রপতির অনুমোদন লাভ করেছে চলতি বছরের ১২ জানুয়ারি।

কারা এই সম্প্রদায় ভূক্ত?

যারা তপশিলি জাতি, উপজাতি, সামাজিক আর শিক্ষাগত যোগ্যতার ভিত্তিতে পিছিয়ে থাকা সংরক্ষিত সম্প্রদায়ের মধ্যে নন এবং পারিবারিক আয় আট লক্ষ টাকার নীচে তাঁরা এই ইডব্লিউএস সম্প্রদায়ের মধ্যে পড়েন। তা ছাড়াও এই সম্প্রদায়ভুক্ত হওয়ার আরও অন্যান্য কয়েকটি মাপকাঠি আছে।

আরও পড়ুন – অ্যানড্রয়েড ফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার আরও সহজ হল- দেখুন কী ভাবে?

ডিপার্টমেন্ট অব পাবলিক সেক্টর এন্টারপ্রাইজেসের (ডিপিই) পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সমস্ত মন্ত্রক আর বিভাগের অধীনস্ত সকল সেন্ট্রাল পাবলিক সেক্টর এন্টারপ্রাইজকে এই সংরক্ষণের বিষয়ে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। সকল প্রকার সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্র আগামি ১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ থেকে তা কার্যকর হবে।

পাশাপাশি সেন্ট্রাল পাবলিক সেক্টর এন্টারপ্রাইজগুলিকে শুরুর দিন থেকেই নিয়োগ সম্পর্কিত একটি পাক্ষিক রিপোর্ট পেশ করতে বলা হয়েছে। ১৫ দিনের এই রিপোর্ট পাঠাতে হবে ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকেই। এই রিপোর্ট তৈরি করতে হবে তপশিলি জাতি, উপজাতি থেকে শুরু করে অর্থনৈতিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া সম্প্রদায়-সহ সকল সংরক্ষিত আসনে প্রার্থী নেওয়ার বিষয়েই।

সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে ইডব্লিউএস খাতে প্রার্থী নিয়োগ যাতে কোনো রকম ভাবেই বাদ না পড়ে সেই বিষয়ে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে সরকারি সকল দফতর আর মন্ত্রকগুলিকে।

মানব সম্পদ উন্নয়ণমন্ত্রী প্রকাশ জাভাড়েকর বলেন, ইতিমধ্যেই তাঁর মন্ত্রক আইআইটিএস, আইআইএমএস, কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলি-সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই সংরক্ষণ পদ্ধতি আগামি শিক্ষাবর্ষ থেকেই চালু করার নির্দেশ দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here