কেমন হবে সম্পর্ক? ছবি: এমইএ টুইটার

ইসলামাবাদ: চার বছর আগে নিজের শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে তৎকালীন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ এবং সার্ক সদস্যভুক্ত দেশগুলির রাষ্ট্রপ্রধানদের আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এ বার পালটা সৌজন্য দেখাতে পারে পাকিস্তানও। পাক তেহরিক-এ-ইনসাফ সূত্রে খবর, প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথগ্রহণের অনুষ্ঠানে মোদীকে আমন্ত্রণ জানাতে পারেন ইমরান খান।

পাকিস্তানের সাম্প্রতিক নির্বাচনে একক বৃহত্তম দল হয়েছে ইমরানের পিটিআই। কিন্তু সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে হলে বিভিন্ন দলের সমর্থন জোগাড় করতে হবে ইমরানকে। পিটিআইয়ের আশা, তাড়াতাড়িই তাদের শরিক জোগাড় হয়ে যাবে। আগামী ১১ আগস্ট শপথের দিন বেছে নিয়েছেন ইমরান।

আরও পড়ুন ইমরান খানের নেতৃত্বে পাকিস্তান ‘এশিয়ান টাইগার্স’ হবে, বললেন প্রাক্তন এই তারকা

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে ইমরানের দলের এক নেতা বলেছে, “প্রধানমন্ত্রীর শপথের অনুষ্ঠানে নরেন্দ্র মোদী-সহ সার্ক সদস্যভুক্ত সব দেশের রাষ্ট্রপ্রধানকে আমন্ত্রণ জানানোর চিন্তাভাবনা করছে দল। খুব তাড়াতাড়িই এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।”

মোদীর সঙ্গে সোমবার রাতে ইমরানের যে কথাবার্তা হয়েছে সেটাকে স্বাগত জানিয়েছেন দলীয় মুখপাত্র ফাওয়াদ চৌধুরী। দু’দেশের সম্পর্কে এক নতুন অধ্যায় খোলা হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

এখন সরকারি ভাবে ক্ষমতায় না এলেও ভোটের ফলপ্রকাশের দিন সাংবাদিক সম্মেলনে ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বের বার্তা দিয়েছিলেন ইমরান। তিনি বলেন, “সম্পর্কের উন্নতিতে ভারত যদি এক ধাপ এগোয় আমরা দু’ধাপ এগোব।”

আরও পড়ুন পাকিস্তানের কট্টরপন্থা উপমহাদেশে গণতন্ত্রের অশনি সংকেত, ইমরানকে দিয়েও হবে না, পাক ফৌজের চাই হাফিজকে

তবে ইমরানের দল যদি মোদীকে আমন্ত্রণ জানান, পাকিস্তানের কট্টরপন্থীরা এবং সেনা সেটা মেনে নেবে কি না সে প্রশ্ন থেকেই যায়। কারণ চার বছর আগে ভারতে আসতে গিয়ে যথেষ্ট বাধার মুখে পড়েছিলেন নওয়াজ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here