সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে এ রকম ব্যবস্থা পাকিস্তান আগে কখনও নেয়নি: ইমরান খান

0
pakistan terrorist organisations

ইসলামাবাদ: ঠেলায় পড়ে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে শুরু করেছে পাকিস্তান! প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বক্তব্যে সেটাই পরিষ্কার। ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে নতুন করে যুদ্ধ জিগিরের আশঙ্কা প্রকাশ করেও ইমরান জানিয়েছেন, তাঁর আমলেই সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সব থেকে বড়োসড়ো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইমরান বলেন, “ব্যাপারটাকে কোনো ভাবেই আর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারব না। দেশের মাটিতে কোনো ভাবেই এই সশস্ত্র গোষ্ঠীগুলোকে কাজ করতে দেওয়া হবে না। পুলওয়ামার মতো হামলা হবে, আর সব দায় আমাদের নিতে হবে, এটা আর চলতে পারে না।”

তাঁর ‘নয়া পাকিস্তান’-এ সন্ত্রাসবাদীদের কোনো জায়গা নেই বলে ইমরানের দাবি। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, এই মুহূর্তে পাকিস্তানে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে যা ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে, সেটা আগে কখনও নেওয়া হয়নি। ইমরানের কথায়, “আমরা ওদের ধরপাকড় শুরু করেছি। ওদের পুরো ব্যবস্থাগুলো ভেঙে ফেলা হচ্ছে। সন্ত্রাসবাদীদের বিরুদ্ধে এ রকম ব্যাবস্থা পাকিস্তানে আগে কখনও নেওয়া হয়নি।”

সেই সঙ্গে ইমরান যোগ করেন, “আমার এখনও আশঙ্কা পুরোপুরি যাচ্ছে না। আমার মনে হচ্ছে নির্বাচনের আগে ফের একবার যুদ্ধ জিগির তোলা হতে পারে।”

আরও পড়ুন গোয়ায় শক্তিবৃদ্ধি বিজেপির

বালাকোটে অভিযানের পর থেকেই সে দেশের জইশ-সহ বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনগুলির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানকে। অনেককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে ভারত, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-সহ বেশ কিছু দেশ পাকিস্তানকে সাফ জানিয়ে দিয়েছে, জঙ্গিদের বিরুদ্ধে স্থায়ী এবং প্রমাণযোগ্য ব্যবস্থা নিতে হবে পাকিস্তানকে।

তবে সেই সঙ্গে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে আরও একবার তোপ দেগে ইমরান বলেন, “ভারতের মানুষের বোঝা উচিত, শুধুমাত্র নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে যুদ্ধ জিগির তোলা হচ্ছে।” এর আগেও অবশ্য ইমরান জানিয়েছিলেন, লোকসভা ভোটের পালা চুকে গেলে আবার স্বাভাবিক হয়ে যাবে ভারত-পাকিস্তান সম্পর্ক।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন