পণ্য-পরিষেবা কর (জিএসটি) বিল সোমবার পাশ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে করব্যবস্থা সংস্কারের পথে আরও অনেক দূর এগিয়ে গেল ভারত। গত বুধবারই বিলটি  রাজ্যসভায় পাশ হয়।  

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী জিএসটি বিলকে ভারত সরকারের একটি ভালো পদক্ষেপ বলে বর্ণনা করেন। তিনি বলেন, কালো টাকার রমরমা এবং দুর্নীতি কমানো ছাড়াও করের সন্ত্রাসবাদ (ট্যাক্স টেররিজম) বন্ধ করতে এই জিএসটি ব্যবস্থা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। জিএসটি বিলকে সমর্থন করার জন্য সব রাজনৈতিক দলকে ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন ক্রেতা সাধারণকে ‘রাজা’ বানিয়ে দেবে জিএসটি।  তিনি বলেন, ‘টিম ইন্ডিয়া’ একটা বড়ো পদক্ষেপ নিল। এর ফলে অর্থনীতিতে সচ্ছ্বতা আসবে এবং ‘এক দেশ এক কর’ ব্যবস্থার প্রবর্তন হবে।

জিএসটি বিল তথা সংবিধান (১২২তম সংশোধনী) বিল ২০১৫-এর মে মাসেই লোকসভায় পাশ হয়েছিল। কিন্তু রাজ্যসভায় পাশ হওয়ার সময় এর সঙ্গে সরকারের আনা ছ’টি সংশোধনী গৃহীতও হয়। সেই সংশোধনীগুলি বিলে অন্তর্ভুক্ত করার জন্য বিলটি ফের লোকসভায় আসে। সোমবার লোকসভায় ওই সংশোধনীগুলি-সহ জিএসটি বিল পেশ করা হয়। ৪৪৩ জন সাংসদ এর পক্ষে ভোট দেন। বিলের একমাত্র বিরোধিতা করে এডিএমকে। তারা কক্ষত্যাগ করে। এখন বিলটিকে আইনে পরিণত করতে হলে দেশের অর্ধেক বিধানসভায় পাশ করাতে হবে। তার পর রাষ্ট্রপতির কাছে যাবে তাঁর সইয়ের জন্য।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here