নয়াদিল্লি: “ভারত-চিন সীমান্ত ইস্যুটি এখনও অমীমাংসিত রয়েছে” বলে মঙ্গলবার লোকসভায় জানালেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। একই সঙ্গে তিনি জানান, “চিনকে যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারত”। তবে তাঁর বক্তব্য শেষ হওয়ার পরেই আলোচনার দাবিতে ওয়াকআউট করলেন কংগ্রেস সাংসদরা।

এ দিন সংসদের বাদল অধিবেশনের দ্বিতীয় দিনে লাদাখ সীমান্ত সংক্রান্ত আলোচনায় ভারত এবং চিনের সাম্প্রতিক সংঘাতের বিষয়টি উত্থাপন করেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

দু’দেশের মধ্যে চলমান সীমান্ত সংঘাত প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, “ভারত ও চিন সীমান্ত ইস্যুটি এখনও অমীমাংসিত রয়েছে। এখনও পর্যন্ত কোনো পারস্পরিক মতৈক্য বা সমাধানে পৌঁছানো সম্ভব হয়নি। সীমান্ত নিয়ে চিন সহমত নয়”।

তাঁর কথায়, “ইতিহাস এবং ঐতিহ্যের উপর ভিত্তি করে দু’দেশের মধ্যে যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা নির্ধারিত হয়েছে, সে বিষয়টিকে স্বীকৃতি দেয় না। সুগঠিত ভৌগলিক নীতির উপর ভিত্তি করেও আমরা বিষয়টিকে বিবেচনা করে থাকি। ভারত ও চিন দু’দেশেরই সীমান্তে শান্তি এবং স্থিতাবস্থা বজায় রাখায় সম্মতি জানানো উচিত। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নে এটা খুবই দরকারি”।

তিনি বলেন, “গত এপ্রিল মাসে পূর্ব লাদাখের প্য়াংগং লেক, গালওয়ান উপত্যকা, গোগরা, কালা টপের মতো প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর প্রচুর সংখ্যায় সেনা মজুত করে চিন। তার পরেই দু’দেশের আন্তর্জাতিক সীমান্তে স্থিতাবস্থা ভেঙে চিন আগ্রাসনের চেষ্টা চালায়”।

গালওয়ান উপত্যকায় ২০ জন ভারতীয় জওয়ানের শহিদ হওয়ার কথা উল্লেখ করে রাজনাথ বলেন, “আমাদের সেনা চিনকে উপযুক্ত জবাব দিয়েছে। আমাদের ২০ জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। তার থেকেও বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে চিনের। আমাদের জওয়ানরা যেখানে সংযম দেখানোর কথা, সেখানে তা দেখিয়েছেন”।

স্পষ্ট করেই প্রতিরক্ষামন্ত্রী এ দিন জানিয়ে দেন, “আমরা কূটনৈতিক চ্যানেলগুলির মাধ্যমে চিনকে জানিয়েছি যে, এক তরফা ভাবে স্থিতাবস্থা পরিবর্তন করার প্রচেষ্টা চালিয়ে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি লঙ্ঘন করা হয়েছিল। চিনা সেনার রক্তক্ষয়ী আচরণ অতীতের সমস্ত চুক্তি লঙ্ঘন করেছে। পাল্টা হিসেবে আমাদের সীমান্ত রক্ষার জন্য এলাকায় আমাদের সেনা মোতায়েন করা হয়েছে”।

কংগ্রেসের ওয়াকআউট

রাজনাথ সিং নিজের বক্তব্য শেষ করার কয়েক মুহূর্তের মধ্যেই ভারত-চিন সীমান্ত ইস্যুতে আলোচনার দাবিতে লোকসভা থেকে ওয়াকআউট করেন কংগ্রেস সাংসদরা।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ মহামারির আবহে সংসদের এ বারের বাদল অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্ব ছেঁটে ফেলা হয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন