india lashes out at pakistan

নিউ ইয়র্ক: কাশ্মীরে ভারতের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন’-এর অভিযোগ তুলে ভারতকে তীব্র আক্রমণ করেছিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শাহিদ খাকান আব্বাসি। এর কিছুক্ষণের মধ্যেই পালটা জবাব দিল ভারত। পাকিস্তানকে ‘টেরোরিস্তান’ আখ্যা দিয়ে তীব্র আক্রমণ করলেন রাষ্ট্রপুঞ্জে ভারতের ‘ফার্স্ট সেক্রেটারি’।

রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভার অধিবেশনে ফার্স্ট সেক্রেটারি এনাম গম্ভীর বলেন, “পাকিস্তান এবং টেরোরিস্তান সমার্থক শব্দ। পাকিস্তানের অর্থ ‘স্বচ্ছ ভূমি’, কিন্তু সে দেশটি এখন সন্ত্রাসবাদের স্বচ্ছ ভূমি হয়ে উঠেছে। বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদের আঁতুড়ঘরে পরিণত হয়ে উঠেছে পাকিস্তান।”

ওসামা বিন লাদেন এবং হাফিজ সঈদের প্রসঙ্গ উল্লেখ করে গম্ভীর বলেন, পাকিস্তানের সন্ত্রাসবাদবিরোধী নীতি মানে সন্ত্রাসবাদীদের মূল স্রোতে ফিরিয়ে আনা। উল্লেখ্য, মার্কিন নিরাপত্তাবাহিনীর হাতে নিহত হওয়ার আগে পাকিস্তানের সামরিক শহর আবোটাবাদে ছিলেন ওসামা। নিজের রাজনৈতিক দল তৈরি করার কথা ভাবছেন হাফিজ সঈদ।

গম্ভীরের কথায়, “রাষ্ট্রপুঞ্জের স্বীকৃত জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তৈবার নেতা হফিজ সঈদ নিজের রাজনৈতিক দল তৈরি করার পরিকল্পনা করছেন। এর থেকেই পাকিস্তানের প্রকৃত রূপের পরিচয় পাওয়া যায়।”

উল্লেখ্য, রাষ্ট্রপুঞ্জে নিজের বক্তৃতায় অধিকাংশ সময় কাশ্মীরের ভারতের ‘মানবাধিকার লঙ্ঘন’-এর পেছনে খরচ করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। তাঁর অভিযোগ ছিল, “কাশ্মীরে মানুষের লড়াইকে দমন করছে ভারত।” পরিস্থিতি দেখার জন্য রাষ্ট্রপুঞ্জের বিশেষ দূতকেও কাশ্মীর পরিদর্শনে যাওয়ার কথা বলেন আব্বাসি। এর পালটা জবাব দিয়েছে ভারত। এই প্রসঙ্গে গম্ভীর বলেন, “পাকিস্তানের বোঝা উচিত, যে কাশ্মীর ভারতের ছিল এবং ভারতেরই থাকবে। যতই জঙ্গি অনুপ্রবেশ করার পাকিস্তান, কাশ্মীরকে কখনও তারা নিতে পারবে না।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here