মৃতের সংখ্যা সামান্য বাড়লেও দৈনিক সংক্রমণ আরও কিছুটা কমল ভারতে

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার দৈনিক সংক্রমণ আরও কিছুটা কমে ৬০ হাজারের ঘরে ঢুকে গিয়েছে। যদিও সামান্য বেড়েছে মৃতের সংখ্যাটি। একই ভাবে কিছুটা কমেছে সংক্রমণের হারও। সংক্রমণের পতনের এই ধারা চলতে থাকলে, কিছু দিনের মধ্যেই ভারতে দৈনিক সংক্রমণ ৫০ হাজারের ঘরে ঢুকে যাবে, এই আশা করাই যায়।

নতুন সংক্রমণ কমল অনেকটাই

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) তথ্য অনুযায়ী শনিবার ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২ কোটি ৯৮ লক্ষ ২৩ হাজার ৫৪৬। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ হাজার ৭৫৩ জন।

Loading videos...

সংক্রমণের হার রয়েছে স্বস্তিদায়ক জায়গায়। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১৯ লক্ষ ২ হাজার ৯টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ফলত এ দিন সংক্রমণের হার ছিল ৩.১৯ শতাংশ।

শনিবারের পর ভারতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা রয়েছে ৭ লক্ষ ৬০ হাজার ১৯। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সক্রিয় রোগী কমেছে ৩৮ হাজার ৬৩৭ জন। বর্তমানে দেশে ২.৫৪ শতাংশ কোভিডরোগী চিকিৎসাধীন।

সংক্রমণ কোথায় কেমন

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৯টি রাজ্যে দৈনিক সংক্রমণ এক হাজারের বেশি ছিল। এর মধ্যে মাত্র একটা রাজ্যে সংক্রমণ পাঁচ সংখ্যায় রেকর্ড করা হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণ কোথায় কেমন ছিল, দেখে নিন।

১) কেরল – ১১,৩৬১

২) মহারাষ্ট্র – ৯,৭৯৮

৩) তামিলনাড়ু – ৮,৬৩৩

৪) অন্ধ্রপ্রদেশ – ৬,৩৪১

৫) কর্নাটক – ৫,৭৮৩

৬) ওড়িশা – ৩,৮০৬

৭) অসম – ৩,৭০৬

৮) পশ্চিমবঙ্গ – ২,৭৮৮

৯) তেলঙ্গানা – ১,৪১৭

সুস্থতার হার আরও কিছুটা বাড়ল

শুক্রবারই দেশে সুস্থতার হার ৯৬ শতাংশের গণ্ডি অতিক্রম করেছিল। এ দিন সেটা আরও কিছুটা বাড়ল। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থ হয়েছেন ৯৭ হাজার ৭৪৩ জন। এর ফলে দেশে এখনও পর্যন্ত সুস্থ হলেন মোট ২ কোটি ৮৬ লক্ষ ৭৮ হাজার ৩৯০ জন। ভারতে সুস্থতার হার বর্তমানে বেড়ে হয়েছে ৯৬.১৬ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার নিরিখে সবার ওপরে যে ৫টি রাজ্য ছিল সেগুলি হল তামিলনাড়ু (১৯,৮৬০), কর্নাটক (১৫,২৯০), মহারাষ্ট্র (১৪,৩৪৭), কেরল (১২,১৪৭), অন্ধ্রপ্রদেশ (৮,৪৮৬)।

মৃতের সংখ্যা সামান্য বাড়ল

তবে মৃতের সংখ্যা ফের কিছুটা বেড়েছে ভারতে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার কারণে প্রাণ হারিয়েছেন ১৬৪৭ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত দেশে ৩ লক্ষ ৮৫ হাজার ১৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশে মৃতের হার ১.২৯ শতাংশ রয়েছে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন