submarine

ওয়েবডেস্ক: আগ্রাসনের নীতি নিয়ে ক্রমশ ভারত মহাসাগর অঞ্চলের দিকে এগিয়ে আসছে চিন। সেই অঞ্চলে কৌশলগত জমি দখল নিয়ে বাড়ছে ভারত-চিন ঠান্ডা লড়াই। চিনের সেই সম্ভাব্য আক্রমণ প্রতিহত করতেই এবার অস্ত্র সঞ্চয়ের দিকে জোর দিল ভারত। শুক্রবারের এক সাংবাদিক বৈঠকে জানালেন ভারতের নৌ-সেনাধ্যক্ষ সুনীল লানবা। তিনি বলেন, ভারত মহাসাগরে পরমাণু অস্ত্র বহন এবং আক্রমণে সক্ষম এ রকম ছ’টি ডুবোজাহাজ তৈরির প্রস্তুতি চলছে।

“ইতিমধ্যেই ডুবোজাহাজ তৈরির কাজ শুরু হয়ে গিয়েছে। লড়াইও প্রায় শুরু হয়ে গিয়েছে বলাই যায়। আমি সেই জায়গা থেকেই ব্যাপারটা দেখছি”, শুক্রবার এ কথা জানিয়েছেন নৌ-সেনাধ্যক্ষ।

তবে শুধুই ছ’টি পরমাণু শক্তিসম্পন্ন ডুবোজাহাজ নয়! এছাড়াও চিনের আক্রমণ প্রতিহত করার লক্ষ্যে ভারতের অস্ত্রভাণ্ডারে যোগ হতে চলেছে বেশ কিছু অপ্রতিরোধ্য হাতিয়ার। তার মধ্যে রয়েছে চারটি পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রবাহী ডুবোজাহাজ এবং ১৮টি ডিজেল-ইলেকট্রিক ডুবোজাহাজও।

জানা গিয়েছে, এই ছ’টি পরমাণু অস্ত্র বহন এবং আক্রমণে সক্ষম ডুবোজাহাজ তৈরিতে খরচ হচ্ছে প্রায় ৬০,০০০ কোটি টাকা। আগামী বছরেই নির্মাণকাজ শেষ করে তা ভারতীয় নৌবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে।

“এবার প্রশ্ন আমাদের দেশের নিরাপত্তার। সঙ্গত কারণেই আমরা ব্যাপারটা নিয়ে ভাবিত। তা যাতে বিরূপ পরিস্থিতি সৃষ্টি না করে, তার জন্যও আমরা সদা তৎপর”, জানিয়েছেন সুনীল লানবা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here