নয়াদিল্লি: ২০২৩-এর মধ্যেই বিশ্বসেরা হবে ভারত। জনসংখ্যার নিরিখে চিনকে ছাপিয়ে যাবে দেশ। সোমবার এমনই দাবি করা হয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের একটি রিপোর্টে।

রাষ্ট্রপুঞ্জের ওই রিপোর্টটি বলছে, এ বছরের নভেম্বরে বিশ্বের জনসংখ্যা ৮০০ কোটি ছাড়াবে। ১৯৫০-এর পর থেকে গোটা বিশ্বের জনসংখ্যার বৃদ্ধির হার কিছুটা কমে গিয়েছিল। ২০২০-তে তা এক শতাংশের নীচে নেমে যায়। কিন্তু নতুন এই রিপোর্ট বলছে, ২০৩০-এর মধ্যে জনসংখ্যা ছাড়াবে ৮৫০ কোটি। ২০৫০-এ তা গিয়ে হবে ৯৭০ কোটি।

জনসংখ্যার নিরিখে সবচেয়ে এগিয়ে পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া। এখনও চিনের জনসংখ্যার বিশ্বে সবচেয়ে বেশি। বিশ্বের পুরো জনসংখ্যার ২৬ শতাংশের বসবাস এ অঞ্চলেই। তার মধ্যে চিন এবং ভারতে ১৪০ কোটির বেশি জনসংখ্যা। রিপোর্ট অনুযায়ী, এশিয়া ও আফ্রিকার কিছু অঞ্চলেই জনসংখ্যা বৃদ্ধি হবে সবচেয়ে বেশি। ভারত ছাড়াও সে তালিকায় রয়েছে, কঙ্গো, মিশর, পাকিস্তান, নাইজিরিয়া, ইথিয়োপিয়া এবং তানজানিয়া।

ভারতের জনসংখ্যা বৃদ্ধি অর্থনীতিতে কোনো আঘাত দিতে পারে কি না সে দিকে আলোকপাত করেনি এই রিপোর্ট। অনেক দিন ধরেই দেশের অর্থনৈতিক উন্নতির ক্ষেত্রে বাড়তি জনসংখ্যাকে বাধা হিসাবে দেখা হয়েছে। এর কারণ হিসাবে বেশ কয়েকটি কথাও তুলে ধরা হয়ে থাকে।

আরও পড়তে পারেন:

উদ্ধব বনাম শিন্ডে মামলা: কোনো রায় দিল না সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্ট শাস্তির দিল বিজয় মাল্যকে, চার মাসের জেল, ২ হাজার টাকা জরিমানা

নিম্নচাপের পরোক্ষ প্রভাবেই বৃষ্টি দক্ষিণবঙ্গে, এখনও ভারী বর্ষণের ইঙ্গিত নেই

বিপর্যয়ের ধাক্কা সামলে ফের শুরু হল অমরনাথ যাত্রা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন