সেরামের সঙ্গে সরকারের ‘দর কষাকষি’তেই টিকাকরণে বিলম্ব? চাঞ্চল্যকর তথ্য

0

নয়াদিল্লি: অ্যাস্ট্রাজেনেকার কোভিড -১৯ ভ্যাকসিনের দাম কমানোর জন্য সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে আলোচনা করেছে ভারত সরকার। বিষয়টির সঙ্গে সম্পর্কিত একটি সূত্র জানিয়েছে, যে কারণে সারা দেশ জুড়ে টিকারকরণ প্রক্রিয়ায় বিলম্ব ঘটছে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে, ভারতের ওষুধ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইতিমধ্যেই (৩ জানুয়ারি) সেরাম ইনস্টিটিউটের (Serum Institute) তৈরি কোভিশিল্ড (Covishield)-কে জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। একই ভাবে অনুমোদন পেয়েছে ভারত ভারত বায়োটেকের (Bharat Biotech) তৈরি কোভ্যাক্সিনের (Covaxin)-ও। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে কোনো সংস্থাকেই অর্ডার দেওয়া হয়নি।

দাম কমানোর চেষ্টা

একটি সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদ সংস্থা রয়টার্সের রিপোর্টে বলা হয়েছে, বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরেই কেন্দ্রের ঊর্ধ্বতন আধিকারিকরা সেরামের সঙ্গে চুক্তির শর্তগুলি নিয়ে আলোচনা করছেন। আশা করা হচ্ছে ভ্য়াকসিনের প্রতিটি ডোজের আনুমানিক দাম তিন ডলারের নীচে নামিয়ে আনা যাবে।

এর আগে গত নভেম্বর মাসে সেরাম কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা সিএমবিসি-টিভি১৮-র কাছে জানিয়েছিলেন, ভারতের খোলা বাজারে ভ্যাকসিনের ডোজ প্রতি দাম পড়তে পারে হাজার টাকা (১৩.৫৫ ডলার‌), সরকারের ক্ষেত্রে সেই দাম নির্ধারিত হতে পারে আড়াইশো টাকা (৩.৪০ ডলার)-র কাছাকাছি।

এর পরেই সরকারি আধিকারিকরা ভ্যাকসিনের দাম কমানোর আশা করছেন। সূত্রটি জানিয়েছে, দাম কমানো সম্ভব হলে ১৩০ কোটি জনসংখ্যার টিকাকরণে কিছুটা হলেও খরচ বাঁচবে। যে কোনো সরকারই এটা চাইবে।

যে কোনো সরকারই দাম কমাতে চাইবে

অন্য এক আধিকারিক জানান, “সেরামের সঙ্গে চুক্তিতে দাম অবশ্যই একটা ইস্যু। আমরা দাম কমাতে চাইছি”।

তবে এ ব্যাপারে স্বাস্থ্যমন্ত্রক এভং সেরাম কর্তৃপক্ষের কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি বলে রিপোর্টটিতে উল্লেখ করা হয়েছে। তবে সূত্রটি জানিয়েছে, বিশ্বের দেড়শোর বেশি দেশ এই ভ্যাকসিন চাইছে। কিন্তু ভারত সরকারের সঙ্গে দাম নিয়ে চূড়ান্ত চুক্তি না হওয়া পর্যন্ত কোনো পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব নয়।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার প্রধানমন্ত্রীর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, ১৬ জানুয়ারি থেকেই দেশ জুড়ে শুরু হবে করোনার টিকাকরণ।

প্রথমে টিকা পাবেন স্বাস্থ্যকর্মীরা, তারপরে করোনা বিরুদ্ধে প্রথম সারির করোনাযোদ্ধারা। প্রথম পর্যায়ে ৩ কোটি ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এর পর পাবেন পঞ্চাশোর্ধ ব্যক্তিরা। তার পরে ৫০ নীচে অথচ কো-মর্বিডিটি রয়েছে, এমন ব্যক্তিরা টিকা পাবেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে ২৭ কোটি ভ্যাকসিন বিতরণ করা হবে।

আপডেট পড়ুন এখানে: সেরামকে ১.১০ কোটি ভ্যাকসিনের বরাত দিল কেন্দ্র, ডোজ প্রতি ২১০ টাকা

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন