দলাই লামাকে নিয়ে বাড়াবাড়ি করলে ভারতকে চড়া দাম দিতে হবে: চিনা সংবাদপত্র

0

বেজিং: তিব্বতি ধর্মগুরু দলাই লামার অরুণাচল প্রদেশ সফর ঘিরে চিন-ভারত সম্পর্কে যে উত্তাপ তৈরি হয়েছে, তা ঠান্ডা হওয়ার কোনো লক্ষণ নেই। দুদিন আগেই অরুণাচলের ৬টি জায়গার নতুন নামকরণ করে সেগুলিকে চিনের অঙ্গ হিসেবে দেখানো হয়েছিল। কড়া প্রতিক্রিয়া জানিয়েছিল ভারতও। শুক্রবার চিনের সরকারি সংবাদপত্র গ্লোবাল টাইমসে প্রকাশিত উত্তর সম্পাদকীয় নিবন্ধে মন্তব্য করা হয়েছে, ভারত যদি দলাই লামাকে নিয়ে বাড়াবাড়ি করে, তাহলে ভারতকে তার ‘চড়া দাম দিতে হবে’।

৬টি জায়গার নতুন নামকরণ প্রসঙ্গে ভারত বলেছিল, নতুন নাম দিলেই কোনো জায়গা চিনের হয়ে যায় না। তারও উত্তর দেওয়া হয়েছে ওই নিবন্ধে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘স্রেফ দলাই লামা বলেন বলেই’ অরুণাচল ভারতের হয়ে যেতে পারে না।

প্রায় ৯০ হাজার বর্গ কিলোমিটারের অরুণাচল প্রদেশ-কে নিয়ে চিন-ভারতের সীমান্ত সমস্যা বহুদিন ধরেই চলছে। চিন অরুণাচলকে ‘দক্ষিণ তিব্বত’ বলে থাকে।

আরও পড়ুন: অরুণাচল অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ, নাম দেওয়ার অধিকারই নেই চিনের, সাফ জানাল ভারত

ওই নিবন্ধে বলা হয়েছে, “নয়াদিল্লি সাম্প্রতিক কালে দলাই লামাকে চিনের বিরুদ্ধে কাজে লাগাচ্ছে…ওসব ছেড়ে ভারতের গভীর ভাবে চিন্তা করা উচিৎ, চিন কেন অরুণাচল প্রদেশের ৬টি জায়গার নতুন নামকরণ করল। দলাই লামার তাস খেলাটা নয়াদিল্লির পক্ষে মোটেই বুদ্ধিমানের কাজ নয়। ভারত যদি এই পাতি খেলাটা চালিয়ে যেতে থাকে, তাহলে শেষ পর্যন্ত তাদের চড়া দাম দিতে হবে”।

নিবন্ধে অভিযোগ করা হয়েছে, চিন সীমান্ত সমস্যা মেটাতে উদ্যোগী হলেও ভারত তাতে সাড়া দিচ্ছে না।

” মনে হচ্ছে ভারত চিনের সঙ্গে শক্তি পরীক্ষার লড়াই চালানোর ব্যাপারে তারা কত দৃঢ়, তা দেখাতে গিয়ে, ফাঁদে পড়ে গেছে। কিন্তু কোন পক্ষ বেশি শক্তিশালী বা কোন পক্ষ বেশি সুবিধাজনক অবস্থানে আছে, তা দিয়ে সীমান্ত সমস্যার সমাধান করা যায় না। তা না হলে, বেজিং-এর নয়াদিল্লির সঙ্গে আলোচনায় বসার কোনো প্রয়োজনই থাকতো না”, বলা হয়েছে গ্লোবাল টাইমস-এর ওই নিবন্ধে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here