muddy siang river

নয়াদিল্লি :  সিয়াং নদীর রঙ বদলের কারণ নিয়ে ধন্দে ভারত। এই মর্মে চিন প্রশাসনের একটি চিঠির উত্তরে শনিবার পালটা চিঠি পাঠালেন কেন্দ্রীয় জলসম্পদ উন্নয়ন প্রতিমন্ত্রী অর্জুন রাম মেঘওয়াল। চলতি সপ্তাহের গোড়ার দিকে চিন ভারতকে একটি চিঠি দিয়েছিল। সেই চিঠির বিষয়বস্তু ছিল তিব্বতে লাগাতার ভূমিকম্পের কারণে সিয়াং নদী অচিরেই ভরে যেতে পারে পলিতে। তার থেকে অরুণাচলপ্রদেশ আর অসমে হতে পারে বড়ো ধরনের বন্যা। তেমন পরিস্থিতি তৈরি হলে তা সামলানোর জন্য আগে থেকেই সতর্কতা অবলম্বন করতে আর ব্যবস্থাগ্রহণ করতে বলেছে চিন।

সেই চিঠির উত্তরে কেন্দ্রীয়মন্ত্রী যা লিখেছেন তা খানিকটা এ রকম – সিয়াং নদীর ব্যাপারে ভারত যথেষ্ট সচেতন আর খুবই উদ্বেগে। টুটিং এলাকা দিয়েই ভারত-চিন সীমানা পেরিয়ে ভারতে ঢুকছে এই নদী। এই এলাকায় নদীর জলের রং ক্রমশ কালো হয়ে যাচ্ছে। তার কারণ কী তা ভারত এখনও বুঝে উঠতে পারছে না।

চিঠিতে বলা হয়েছে নদীর গতিপথে আচমকা পরিবর্তন এর কারণ হতে পারে। কারণ সুউচ্চ স্থান থেকে নীচে বাহিত হওয়ার ফলে  অতিরিক্ত পলি মিশে নদীর রং এমন পরিবর্তন হয়ে থাকতে পারে। তার থেকে ব্যাপক বন্যার সৃষ্টি হতে পারে।

তা ছাড়া সিয়াং নদীর জলস্তরেরও অনেকটা পরিবর্তন হয়েছে। প্রায় ৫%।

এই মর্মে আরও বলা হয়, ভূমিধ্বস, ভূমিকম্প বা আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে নদীর ওপর অন্য কোনো রকম কার্যকলাপের ফলে এই ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। আর সেই ক্ষেত্রে চিনের ভেতরের কার্যকলাপ সম্পর্কে ভারত অজ্ঞাত।

তবে সিয়াং নদীর ওপর চিনের তৈরি বাঁধের ব্যাপারে তেমন কিছুই আলাদাভাবে উল্লেখ করেনি ভারত।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here