নয়াদিল্লি: বফর্স কেলেঙ্কারির পর কেটে গিয়েছে তিন দশক। এত দিন পর ভারতীয় সেনাবাহিনীতে এল দু’টি আর্টিলারি কামান। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ভারত যে এম-৭৭৭ আল্ট্রা লাইট হাউইৎজার কামান কিনছে এই দু’টি তারই অঙ্গ। ভারত ৭০ কোটি ডলার দিয়ে আমেরিকার কাছ থেকে ১৪৫টা কামান কিনছে।

বফর্স কেলেঙ্কারির পর এই প্রথম ভারতীয় সেনাবাহিনীতে হাউইৎজার কামান এল। ঘুষ দেওয়ার অভিযোগে বফর্স চুক্তিকে কেন্দ্র করে ব্যাপক তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছিল দেশে। ফলে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম কেনার ব্যাপারে ব্যাপক প্রভাব পড়েছিল।

আর্টিলারি তথা নিজেদের গোলন্দাজ বাহিনীকে ব্যাপক ভাবে উন্নত করার পরিকল্পনা রয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর। পাঁচ ধরনের আর্টিলারি কামান কেনার প্রক্রিয়া চলছে এখন। এর জন্য খরচ ধরা হয়েছে ২২ হাজার কোটি টাকা। বৃহস্পতিবার যে দু’টি কামান ভারতীয় বাহিনী পেল তা ব্যবহার করা হবে হিমালয়ের উচ্চতম অঞ্চলে চিনের বিরুদ্ধে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাকে জোরদার করার জন্য। এই কামান পূর্ব সীমান্তে ভারতকে বেশ শক্তিশালী করবে বলে আশা করা যায়।

এই ১৫৫ মিমি/৩৯ ক্যালিবারের কামানের পাল্লা ৩০ কিমি। এটি তৈরি করেছে বিএই সিস্টেমস। কোম্পানির এক আধিকারিক জানান, নির্দিষ্ট সময়ের আগেই কামান পৌঁছে গিয়েছে। তিনি বলেন, ভারতীয় সেনাবাহিনীর আর্টিলারি আধুনিকীকরণ কর্মসূচির ব্যাপারে তাঁদের কোম্পানি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে সমর্থন দিয়ে চলেছে। ১৪৫টি কামানের মধ্যে বিএই সিস্টেমস ২৫টি সরবরাহ করবে। বাকিগুলি এখানে অ্যাসেম্বল্‌ করবে মাহিন্দ্রা।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন