দিনে ৪ লক্ষ বার্থ বাড়াতে পারবে ভারতীয় রেল

0
IRCTC
প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি : পাওয়ার ভ্যান বাদ দিয়ে নতুন প্রযুক্তির হাত ধরবে ভারতীয় রেল। তাতে করেই বাড়ানো সম্ভব হবে দিনে চার লক্ষ আসন। সঙ্গে অবশ্যই কমবে খরচও। এই সবই শুরু হবে চলতি বছরের অক্টোবর মাস থেকেই। এই বিষয়ে জানিয়েছেন, ভারতীয় রেলের এক জন আধিকারিক। নতুন প্রযুক্তির ফলে কমবে বায়ুদূষণ ও শব্দদূষণ। উল্লেখ্য এর ফলে ট্রেন প্রতি ৭০০ লিটার কার্বন নির্গমন কমবে।

বর্তমানে ট্রেনের প্রতিটি সাধারণ কামরা ও বাতানুকূল কামরা মিলিয়ে যে পরিমাণ বিদ্যুৎ লাগে তা সরবরাহ করা হয় ট্রেনের সঙ্গে যুক্ত একটি বা দু’টি পাওয়ার ভ্যান থেকেই। এই পাওয়ার ভ্যানে থাকে ডিজেল জেনারেটার। এটি বিদ্যুৎ উৎপন্ন করে। গোটা ট্রেনে সরবরাহ করে। এই পদ্ধতিকে বলা হয় ‘এন্ড অব জেনারেশন’। বিশ্বের অন্যান্য দেশের ক্ষেত্রে এই কাজটি সম্পন্ন হয় ওভার হেডের তার থেকে সরাসরি বিদ্যুৎ টেনেই। এ বার সেই পদ্ধতি অনুসরণ করতে চলেছে ভারতীয় রেল। একে বলা হয় হেড অন জেনারেশন’।

আরও – ৮০ বছরের লম্বা সফর! যাত্রা শেষ করল ভক্সওয়াগেনের বিটল

বর্তমানে এই পুরনো পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ লাগে একটি সাধারণ কামরায় প্রতি ঘণ্টায় ১২০ ইউনিট। এই পরিমাণ বিদ্যুৎ তৈরি করতে ডিজেল লাগে ৪০ লিটার প্রতি ঘণ্টা। এই পরিমাণ বাতানুকূলের ক্ষেত্রে বেড়ে দাঁড়ায় প্রতি ঘণ্টায় ৬৫ থেকে ৭০ লিটার মতো। ফলে নতুন প্রযুক্তিতে পাঁচ হাজারটি কামরার বিদ্যুতের জন্য জ্বালানি খরচ বাঁচবে বছরে ছয় হাজার কোটি টাকার মতো।

তবে শতাব্দীর মতো এক্সপ্রেস ট্রেনগুলির ক্ষেত্রে দু’টি পাওয়ার ভ্যানই সরিয়ে নেওয়া হবে না। আপতকালীন সময়ের জন্য একটি পাওয়ার ভ্যানের ব্যবস্থা রাখা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here