Modi and Ivanka at hyderabad

ওয়েবডেস্ক: হায়দরাবাদে আয়োজিত আন্তর্জাতিক শিল্পোদ্যোগী সম্মেলনের উদ্বোধনে নারীশক্তির জয়গানে মুখরিত হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর পাশে ছিলেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের কন্যা তথা হোয়াইট হাউজের পরামর্শদাত্রী ইভাঙ্কা। এমনিতেই দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথমবার অনুষ্ঠিত এই সম্মেলনের মূল কথা ছিল-সবার সমৃদ্ধিতে নারীশক্তিই প্রথম কথা। তারই সঙ্গে সাজুয্য রেখে মোদীর বক্তব্যে বারবার ঘুরে ফিরে আসে সমাজের সার্বিক বিকাশে নারীশক্তির ভূমিকা এবং প্রয়োজনীয়তার কথা।

এবারের আন্তর্জাতিক শিল্পোদ্যোগী সম্মেলনের যৌথ উদ্যোক্তা ভারত ও আমেরিকা। সারা বিশ্বের প্রায় ১৫০০ স্বনামধন্য শিল্পোদ্যোগী এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন। শীর্ষকের সঙ্গেই মিল রেখে আমন্ত্রিতদের তালিকার বেশির ভাগটাই দখলে রেখেছেন মহিলা উদ্যোগীরা। একদিকে মহিলা শিল্পোউদ্যোগী অন্যদিকে হোয়াইট হাউজের  প্রতিনিধি হিসাবে অংশগ্রহণ করছেন ইভাঙ্কা। মোদীর সাম্প্রতিক আমেরিকা সফরে তিনি নিজেই ইভাঙ্কাকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন।

সম্মেলনকে উপলক্ষ্য করে মোদী যখন পুরাণের প্রসঙ্গ তুলে নারীশক্তির ব্যাখ্যায় দেবী শক্তির কথা বলছেন তখন ইভাঙ্কাও তাঁর সঙ্গে সহমত পোষণ করে বললেন, এক মাত্র নারীশক্তির বিকাশের মাধ্যমেই আমাদের পরিবার, আমাদের অর্থনীতি মায় সমাজ সম্পূর্ণতা লাভ করবে। আমেরিকার নির্বাচনের সময় বাবাকে জেতানোর জন্য নিজের ব্যবসা ছেড়ে দিয়ে সমাজের কাজে নিজেকে সমর্পণ করার কথাও তিনি স্মরণ করেন। আমেরিকায় এখন প্রায় এক কোটি দশ লক্ষ মহিলা নিজের হাতে ব্যবসা চালাচ্ছেন। ফলে ঘরে-বাইরে সর্বত্র পুরষের পাশাপাশি মহিলাদের সমান সুযোগ-সুবিধা দানের মাধ্যেমেই সমাজের উন্নতি সাধন সম্ভব বলে তিনি মনে করেন। সঠিক সময়ে সঠিক সুযোগের সদ্ব্যবহার যে কোনও মানুষের জীবনকে আমূল বদলে দিতে পারে, সে কথা বলতে গিয়ে তিনি শৈশবে মোদীর চা বিক্রির কথা উল্লেখও করেন। ইভাঙ্কা নির্দিষ্ট ভাবে মোদীর কাছে আবেদন রাখেন, ভারতেও যেন মহিলাদের সরিয়ে রেখে সার্বিক উন্নয়নের কথা না ভাবা হয়।ইভাঙ্কাকে নিশ্চিত করতে মোদী জানান, ভারতের মেয়েদের কাছে এখন নিজেকে মেলে ধরার পথ অনেকটাই প্রশস্ত। সরকারি প্রকল্প থেকে ঋণ নিয়ে স্বনির্ভর হয়ে ওঠা থেকে মহাকাশ-এখন সর্বত্রই অবাধ বিচরণ এ দেশের মেয়েদের। যা আগামী দিনে দেশের চালিকাশক্তি হয়ে উঠবে।

উল্লেখ্য, এই সম্মেলনে ইভাঙ্কার উপস্থিতি স্বাভাবিক ভাবেই বেশ কিছু কারণে গুরুত্বপূর্ণ। দেশের অভ্যন্তরে যখন গণতান্ত্রিক পরিবেশ নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে তেমন একটা সময়ে সম্মেলন মঞ্চ থেকে ইভাঙ্কার বক্তব্য বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এমন একটি সম্মেলনে যোগ দিতে পারার জন্য মোদীকে ধন্যবাদ জানিয়ে ইভাঙ্কা সরাসরি বলেন, এদেশ মোদীর শাসনে গণতন্ত্রের প্রতীক হয়ে উঠেছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here