indira-gabdhi

ওয়েবডেস্ক: ‘আয়রন লেডি’ ইন্দিরা গান্ধী দীর্ঘ সময় প্রধানমন্ত্রিত্ব সামলেছেন। এই সময়কালে দেশে জরুরি অবস্থা জারি আর অপারেশন ব্লু স্টার ছিল তাঁর বির্তকিত সিদ্ধান্ত। কিন্তু এই দু’টি বাদ দিলে তিনি দেশের প্রগতির লক্ষ্যে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন।

ইন্দিরা গান্ধীর নেওয়া সেই গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলি কী কী?

কৃষি ক্ষেত্রে স্বনির্ভরকরণ 

তিনি যখন প্রধানমন্ত্রিত্ব গ্রহণ করেন দেশে তখন খাদ্যাভাব। তিনি আমেরিকার কাছে খাদ্যশস্যের জন্য আবেদন করেছিলেন। কিন্তু প্রচুর আবেদন অনুরোধের পর যা এসে পৌঁছেছিল তা নামমাত্র। তখনই তিনি অনুভব করেন দেশকে কৃষি ক্ষেত্রে স্বনির্ভর হতে হবে। গুরুত্ব দেন সবুজ বিপ্লবের ওপর, যদিও তা এটি শুরু হয়েছিল তাঁর প্রধানমন্ত্রিত্বে আসার আগেই। কিন্তু ইন্দিরার আমলে বিশেষ তৎপরতার সঙ্গে বিষয়টি দেখা শুরু হয়। হাইব্রিড আর উচ্চফলনশীল গম আর ধান চাষ শুরু হয়। প্রচুর ফলন বৃদ্ধি পায় পঞ্জাব আর হরিয়ানায়।

ব্যাঙ্কগুলির জাতীয়করণ

ইন্দিরা গান্ধী ১৪টি বাণিজ্যিক ব্যাঙ্ককে জাতীয়করণ করেন। ১৯৬৯ সালের ৩০ জুলাই একটি অর্ডিন্যান্সের মাধ্যমে এই জাতীয়করণ করা হয়। কারণ এই সময় ব্যাঙ্কগুলি বড়ো শিল্পে ঋণ দেওয়া শুরু করেছিল। তাতে করে কৃষিক্ষেত্র অবহেলিত হচ্ছিল। তাই কৃষির উন্নতিতে ব্যাঙ্কের ঋণ কাজে লাগাতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বাংলাদেশ গঠন সহায়তা

পাকিস্তান থেকে পূর্ব পাকিস্তান বেরিয়ে গিয়ে বাংলাদেশ গঠন করে। সেই সময় তাদের এই মুক্তিযুদ্ধে সব রকম সাহায্য করেছিলেন ইন্দিরা গান্ধী । বাংলাদেশের জয় আর সম্পূর্ণ নতুন দেশ রূপে আত্মপ্রকাশের পেছনে ইন্দিরা গান্ধীর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। তিনি এক জন আদর্শ জননেত্রী রূপে পরিচিত হন। তার পর থেকে দেবী দুর্গার সঙ্গে তাঁর তুলনা শুরু হয়।

পোখরানে পরমানু বোমা পরীক্ষা

১৯৬৪ সালে চিনের ১৬ কিলোটন পরমাণু বোমা পরীক্ষা আর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ থেকে ইন্দিরা গান্ধী ক্রমশ উপলব্ধি করেন দেশকে পারমাণবিক শক্তিতে বলীয়ান হতে হবে। তার পরই পরমাণু বোমা পরীক্ষামূলক বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। ১৯৭৪ সালের ১৮ মে। তবে এই সিদ্ধান্ত জানতেন খুব সামান্য কয়েক জন। গোটাটাই গোপন রাখা হয়েছিল। এমনকি বিষয়টি গোপন ছিল প্রতিরক্ষামন্ত্রী জগজীবন রামের কাছেও।

তবে এই সিদ্ধান্তগুলি নিয়েও বির্তক উঠেছে। বিশেষত, সবুজ  বিপ্লব বা পরমাণু বোমা পরীক্ষা। সেই বির্তককে গুরুত্ব দিয়েও বলতে হয়, রাষ্ট্রনেতা হিসাবে তাঁর এই ধরনের সাহসী পদক্ষেপ ইতিহাসে জায়গা করে নিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here