ওয়েবডেস্ক: “যে দেশে গো-রক্ষার নামে মুসলমানদের হত্যা করা হয়, যেখানে এক জন সন্ত্রাসবাদীকে প্রধানমন্ত্রিত্বের ভার দেওয়া হয়, তাকে নিয়ে আর কীই বা বলার থাকতে পারে? ভারতের প্রধানমন্ত্রীর হাতে এখনও রক্ত লেগে রয়েছে। গুজরাতের মুসলমানদের রক্ত”, পাকিস্তানের টিভি চ্যানেলে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বললেন সে দেশের বিদেশমন্ত্রী খাওয়াজা আসিফ। মুম্বই হামলার মূল ষড়যন্ত্রী সঈদকে তাঁর দেশ আশ্রয় দিয়েছিল, সন্ত্রাসবাস প্রসঙ্গে এ কথা স্বীকার করে আসিফ বলেন, “এই বোঝা বয়ে বেড়ানো ছাড়া আমাদের আর কোনো উপায় ছিল না”। তবে সঈদের মতো জঙ্গিদের তৈরি করার জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকেই দুষলেন পাক মন্ত্রী।

সম্প্রতি সুষমা স্বরাজ রাষ্ট্রপুঞ্জের মঞ্চে সরাসরি আক্রমণ করেছিলেন পাকিস্তানকে – “ভারত যেমন জন্ম দিয়েছে আইআইটি, আইআইএম-এর, পাকিস্তান জন্ম দিয়েছে ‘লস্কর-ই-তইবা’, ‘জইশ-ই-মহম্মদ’-এর মতো জঙ্গি সংগঠনের”। “রাষ্ট্রপুঞ্জের সাধারণ সভায় ভারতের বিদেশমন্ত্রী আমাদের দিকে আঙুল তুলেছিলেন, আমরা নাকি সারা বিশ্বে সন্ত্রাসবাদ রফতানি করি। ওঁর দেশের প্রধানমন্ত্রী তো নিজেই একজন সন্ত্রাসবাদী। গুজরাতের মুসলিমদের হত্যা করেছিলেন, সেই রক্ত লেগে আছে মোদীর হাতে। পুরো ভারতটাকেই শাসন করছে আরএসএস নামের একটা সন্ত্রাসবাদী দল”, সোমবার পাকিস্তানের জিও টিভিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন আসিফ। পাকিস্তানে আশ্রিত কুখ্যাত সন্ত্রাসবাদীদের প্রসঙ্গে পাক বিদেশমন্ত্রী মুখ খুলেছেন ওই সাক্ষাৎকারে। বলেন, “এই সঈদরাই ২০ বছর আগে হোয়াইট হাউসে বসে নৈশভোজ সারত, আর এখন বিপদ বুঝে সব দোষ দেওয়া হচ্ছে পাকিস্তানের ঘাড়ে”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here