নয়াদিল্লি: জম্মু কাশ্মীরে অবস্থিত ভারত-পাকিস্তানের ১৯৮ কিলোমিটার লম্বা সীমান্তে নিরাপত্তা বাড়াতে অদৃশ্য প্রযুক্তির সাহায্য নিতে চলেছে কেন্দ্র। লেজারের সাহায্যে দু’দেশের সীমান্তে তৈরি হবে এক অদৃশ্য দেওয়াল। দেশের সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর কাজে সাহায্য করতেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। দিল্লীর ‘ক্রন (সিআরওএন) সিস্টেম’ নামের এক সংস্থাকে লেজার প্রযুক্তির সাহায্যে দেওয়াল তৈরির কাজে নিয়োগ করেছে ভারত সরকার। কেন্দ্রের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ উদ্যোগের সঙ্গে সঙ্গতি রেখেই এই অত্যাধুনিক প্রয়াস ‘কবচ’। সাধারণ লেজার প্রযুক্তির চেয়েও অনেকটা উন্নত নতুন এই ইনফ্রা রেড প্রযুক্তি।

সীমান্ত পেরিয়ে ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশ করতে গেলেই লেজারে বাধা পাবেন অনুপ্রবেশকারী। তৎক্ষণাৎ সচেতন হয়ে যাবেন সীমান্ত রক্ষীরা। অথচ চোখে দেখা যাবে না সেই দেওয়াল। “দেশের সীমান্তের অনেকাংশ দুর্গম এলাকার ওপর দিয়ে যাওয়ায় সব জায়গায় প্রাচীর তৈরি করা সম্ভব না। লেজারের দেওয়াল শুধু মাত্র আলোর রশ্মি দিয়ে তৈরি হওয়ায় যেকোনো জায়গাতেই বসানো সহজ”, জানালেন সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর জম্মু বিভাগের প্রাক্তন ইন্সপেক্টার জেনেরাল রাকেশ শর্মা।

কবচ দেওয়াল ইন্সটল করা যাবে বেশ দ্রুত। মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যেই কয়েক কিলোমিটার অঞ্চলে ইন্সটল করা যাবে। আর বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হলে ইউপিএস-এর সাহায্যে টানা ১২ ঘণ্টা কাজ করবে কবচ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন