বিধায়কদের বিদ্রোহ, আরও এক রাজ্যেও কি চাপে বিজেপি?

0
BJP

ওয়েবডেস্ক: হরিয়ানায় বিজেপির জোটসঙ্গী জননায়ক জনতা পার্টিতে (জেজেপি) বিদ্রোহ দেখা দিয়েছে। এর প্রভাব বিজেপি-জেজেপি জোটেও পড়তে পারে বলে মনে রাজনৈতিক মহল।

বুধবার জেজেপি থেকে পদত্যাগ করেছেন দলীয় বিধায়ক রামকুমার গৌতম। তিনি দলের সহসভাপতিও ছিলেন।

মনে করা হচ্ছে, বিজেপিকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় জেজেপির একাধিক বিধায়ক দলের প্রধান দুষ্মন্ত চৌটলার ওপরে ক্ষুব্ধ। অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হরিয়ানা বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে বিজেপির বিরুদ্ধে একাধিকবার তোপ দেগেছেন জেজেপি প্রধান। এমনকি নরেন্দ্র মোদী আর অমিত শাহকে যে রকম ভাবে তিনি আক্রমণ করতেন, সেই ভিডিও এখনও রয়েছে।

বিদ্রোহীদের প্রশ্ন, এর পরেও কী ভাবে বিজেপিকে সমর্থনে রাজি হয়ে গেলেন দুষ্মন্ত?

গৌতমের আরও দাবি, দলীয় বিধায়কদের পরামর্শ না নিয়েই বিজেপিকে সমর্থন করতে রাজি হয়ে যান দুষ্মন্ত।

তিনি বলেন, “আমরা হতাশ, কারণ আমাদের অবগত না করেই বিজেপির সঙ্গে জোটের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করা হয়। শুধু আমি নই, আমাদের সব বিধায়কই হতাশ। সব দুষ্মন্ত করেছে। বাকি বিধায়কদের অপমান করা হয়েছে। তারা কি সাধারণ মানুষের দ্বারা নির্বাচিত নয়?”

গৌতমের দাবি, জোটের অঙ্ক হিসেবে ১১টি মন্ত্রকের দায়িত্ব পেয়েছে জেজেপি। কিন্তু সব ক’টি মন্ত্রকই দুষ্মন্ত নিজের কাছে রেখে দিয়েছেন। দলীয় বিধায়কদের মন্ত্রিত্ব দেওয়া হয়নি।

আরও পড়ুন এগারো দিন পর বৃহস্পতিবার ফের চালু হচ্ছে তিস্তা তোর্সা এক্সপ্রেস

এই বিদ্রোহ যে হেতু জেজেপিতে, তাই বিজেপির এখানে কিছু করার নেই। কিন্তু হরিয়ানা নির্বাচনে বিজেপি একক বৃহত্তম দল নয়। ফলে জেজেপির কোনো বড়োসড়ো বিদ্রোহ হলে যে জোট সরকার টলমল হয়ে যাবে, তা বলাই বাহুল্য।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন