ওয়েবডেস্ক: দেশ জুড়ে গেল-গেল রব! বড়ো থেকে ছোটো- সব ক্ষমতাশালীরই এক রা- ‘পদ্মাবতী’ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেতে দেওয়া চলবে না। সেন্সর বোর্ড পর্যন্ত এই বিরোধিতায় সামিল হয়ে শুধু ছবিটির থ্রিডি ভার্সন মুক্তির অনুমতির কথা ভাবছে। এরকম পরিস্থিতির মুখে দাঁড়িয়েই কি অনলাইনে ফাঁস করে দেওয়া হল পুরো ছবিটা?

ইংরেজিতে গুগল-এ গিয়ে টাইপ করুন- Padmavati! দেখবেন, সঙ্গে সঙ্গে দুই নম্বরে চলে এসেছে Padmavati full movie অপশন! একই ভাবে সার্চ করুন ইউটিউবে। সেখানেও তিন নম্বরের মধ্যে চলে আসবে Padmavati full movie। এন্টার বোতাম টিপলেই দেখতে পাবেন একটা ২ ঘণ্টা ৫০ মিনিটের ভিডিও। যা সঞ্জয় লীলা বনসালির ছবি হিসেবে দাবি করছে নিজেকে।

এ যদিও শুধুই দাবি! বাস্তবে এখনও পর্যন্ত ছবিটা অনলাইনে ফাঁস হয়নি। তবে হতে বেশি সময় না-ও লাগতে পারে! তেমন চাপা আশঙ্কাই এখন কুরে কুরে খাচ্ছে বলিউডকে। কেন না, এর আগে দেখা গিয়েছে, যে সব ছবি নিয়ে বিতর্ক রটেছে, তা মুক্তির আগেই ছড়িয়ে পড়েছে ইন্টারনেটে। ‘মহল্লা অসসি’, ‘গ্রেট গ্র্যান্ড মস্তি’, ‘উড়তা পঞ্জাব’- ছবিটা সব ক্ষেত্রেই এক! এবার দেখা যাক, কী আছে ‘পদ্মাবতী’র ভাগ্যে!

আরও পড়ুন: “অন্যের কথা জানি না, তবে বনসলি আমায় অসন্তুষ্ট করেছেন”, ‘পদ্মাবতী’ প্রসঙ্গে ঝেড়ে কাশলেন সলমন

তবে নেটদুনিয়ায় ছবি ফাঁসের অদূর ভবিষ্যতের কথা ছেড়ে দিলেও দেখা যাচ্ছে, ‘পদ্মাবতী’র ভাগ্যে জুটছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। বৃহস্পতিবার রাজধানীর সংসদীয় প্যানেলে এক দিকে যেমন তীব্র তিরস্কার জুটেছে ‘পদ্মাবতী’ এবং তার পরিচালকের কপালে, তেমনই ছবির পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন লালকৃষ্ণ আডবাণীর মতো বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা। জানা গিয়েছে, প্যানেল যখন কড়া ভাষায় ছবি মুক্তি নিয়ে বনসলির কাছে নানা কৈফিয়ত দাবি করছিল, তখনই আর থাকতে না পেরে মুখ খোলেন আডবাণী। “ছবির মুক্তির ব্যাপারটা সেন্সর বোর্ডের হাতেই ছেড়ে দিন। আমাদের আলোচনা করার মতো অনেক সমস্যাই জমা হয়ে আছে। এবার বরং সে সবের বিষয়ে চিন্তা-ভাবনা করা যাক”, বলেন তিনি।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন