হামলার ছক বানচাল: রকেট লঞ্চার, ১০০ অ্যালার্ম ক্লক, পিস্তল…মিলল বিস্ফোরণের কাজে ব্যবহৃত অগাধ সরঞ্জাম

0
Country-Made Rocket Launcher

নয়াদিল্লি: বুধবার দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশের ১৭টি জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে ১০ সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করেছে ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সি বা এনআইএ। জঙ্গি সংগঠন আইএসআইএসের সহযোগী সংগঠন হিসাবে কাজ করা হরকত উল হার্ব ই ইসলাম নামের এ দেশের একটি সংগঠনের খোঁজ পেয়েছেন তদন্তকারীরা। জানা গিয়েছে, আগামী বর্ষবরণের রাতে বড়োসড়ো হামলার ছক ছিল ওই গোষ্ঠীর।

গোপনসূত্রে খবর পেয়ে এনআইএ-সহ আর ৬টি গোয়েন্দা সংস্থা ও পুলিশ দিল্লি ও উত্তরপ্রদেশের ১৭টি জায়গায় হানা দেয়। সেখানে মোট ১৬ জনকে আটক করা হয়। যার মধ্যে থেকে ওই ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। একই সঙ্গে জানা গিয়েছে, তল্লাশি চালিয়ে ১০ জনকে গ্রেফতারের পাশাপাশি নাশকতার কাজে ব্যবহৃত অংসখ্য সরঞ্জাম উদ্ধার করেছেন গোয়েন্দারা।

সরকারি সূত্রে খবর, ধৃতদের মধ্যে রয়েছেন এক ইঞ্জিনিয়ার, এক মৌলবি, এক ছাত্র এবং এক জন অটো রিকশা চালক। এমনটাও দাবি করা হয়েছে, মুফতি সোহেল নামের ওই মৌলবিই ছিলেন সংগঠনের প্রধান। যিনি বিদেশ থেকে পাওয়া নির্দেশ মতোই সংগঠনের নাশকতা মূলক পরিকল্পনার ছক সাজিয়েছিলেন। উত্তরপ্রদেশের আমরোহার একটি মসজিদে কাজ করতেন তিনি।

আরও পড়ুন: আইএসের সহযোগী সংগঠনের খোঁজে ১০ সন্দেহভাজনকে আটক করল এনআইএ

তল্লাশি চালিয়ে মিলেছে, একটি দেশি রকেট লঞ্চার, বিস্ফোরক তৈরির কাজে ব্যবহৃত ২৫ কেজি রাসায়নিক, ১২টি পিস্তল, বুলেটপ্রুফ পোশাক, বোমার টাইমার হিসাবে কাজে লাগানোর জন্য ১০০ অ্যালার্ম ক্লক, বোমার রিমোট হিসাবে কাজে লাগানোর জন্য ১০০-র বেশি মোবাইল ফোন, ১৩৫টি মোবাইল সিম কার্ড ইত্যাদি।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন