M J Akbar and Pallavi Gogoi

ওয়েবডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক সাংবাদিক তাঁর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলতেই পাল্টা জবাব দিলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এম জে আকবর। তিনি সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বলেন, ওই ঘটনা ঘটেছিল অভিযোগকারিণীর সম্মতিতেই। হয়তো সম্পর্কের ‘পরিণতিটা সুখকর’ হয়নি। উল্লেখ্য, সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার #মিটু প্লাটফর্মে ইতিমধ্যে আকবরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগে সরব হয়েছেন ২০ জনের উপর মহিলা সাংবাদিক। গত বৃহস্পতিবার ওই বিদেশি সাংবাদিকের অভিযোগটি প্রকাশ্যে আসে।

আকবর বলেন, “১৯৯৪ সাল নাগাদ আমার সঙ্গে পল্লবী গগৈয়ের সম্পর্ক ছিল। যা বেশ কয়েক মাস স্থায়িত্ব লাভ করে। ওই সম্পর্কটি ধীরে ধীরে গভীর থেকে গভীরতর হয়। যা নিয়ে আমার পারিবারিক জীবনেও দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। তুখোড় সাংবাদিক-রাজনীতিবিদ বলেন, সম্ভবত ওই সম্পর্কের পরিণতি খুব একটা সুখকর হয়নি”।

তিনি আরও বলেন, “সে সময় যাঁরা আমাদের সঙ্গে কাজ করতেন তাঁদের কাছেও বিষয়টা অজানা নয়। ফলে তাঁরা এই অভিযোগের সত্য প্রকাশে সাক্ষী দিতে পেরে আশাকরি খুশিই হবে। কারণ, আমি যে জোর করে পল্লবীর সঙ্গে কিছুই করিনি, তা তাঁরা ভালোই বলতে পারবেন”।

উল্লেখ্য, পল্লবী দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে স্পষ্ট করেই লিখেছেন, যখন তিনি আকবরের অধীনে কাজ করতেন। সে সময় আকবর তাঁকে ধর্ষণ করেন।

আকবর বলেন, “২ নভেম্বর দ্য ওয়াশিংটন পোস্টে পল্লবী লিখেছেন, আমি তাঁকে ধর্ষণ করেছি। আমি ওই আর্টিকেলটা পড়েছি। সময় মতোই এ ব্যাপারে ব্যবস্থা নেব”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here