suicide

ওয়েবডেস্ক: চুল উঠে যাওয়ার কারণে আত্মহত্যা করেছেন বেঙ্গালুরুর এক আইটি-কর্মী। পুলিশের এই বিবৃতিকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল দেশে।

বেঙ্গালুরু পুলিশ জানিয়েছে, আর মিঠুন রাজ নামের ওই বছর সাতাশের যুবক কাজ করতেন ইনফোসিস সংস্থায়। পিতা রবি রাজ প্রয়াত হয়েছেন অনেক আগেই। মা বাসন্তী রাজের সঙ্গে বেঙ্গালুরুর জয়হিন্দপুরমের বাড়িতে থাকতেন মিঠুন।

জানা গিয়েছে, অকালে চুল উঠে যাওয়ার সমস্যা নিয়ে অনেক দিন ধরেই বিব্রত ছিলেন মিঠুন। অল্প বয়সেই টাক পড়ে যাওয়ায় মেয়েরা খুব একটা পাত্তা দিতে চাইতেন না তাঁকে। এমনকী, শুধুমাত্র টাক থাকার কারণে একের পর এক বাতিল হয়ে যাচ্ছিল যুবকের বিবাহের প্রস্তাব। বাসন্তী অনেক চেষ্টা করেও ছেলের জন্য কোনো পাত্রী জোগাড় করতে পারেননি। যা পরিণামে মিঠুনকে ঠেলে দিচ্ছিল অবসাদের দিকে।

সোমবার সকালে বছরের প্রথম দিনে মন্দিরে পুজো দিতে যান বাসন্তী। ফিরে এসে তাঁকে মুখোমুখি হতে হয় ছেলের ঝুলন্ত দেহের। সঙ্গে সঙ্গে প্রতিবেশীদের সাহায্যে নামিয়ে এনে মিঠুনকে সরকারি রাজাজি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা মিঠুনকে মৃত ঘোষণা করেন।

বাসন্তীর মুখে মিঠুনের অবসাদের কথা শুনে বেঙ্গালুরু পুলিশ চুল উঠে যাওয়াকেই আত্মহত্যার কারণ সাব্যস্ত করেছে। কিন্তু বাসন্তী পুলিশের এ বক্তব্য মেনে নিতে নারাজ।

“গত কয়েক দিন ধরেই অফিস যাচ্ছিল না মিঠুন। বাড়িতে বসে ছিল মন খারাপ করে। আগেও এরকম হয়েছে। তখন আমি ওকে বুঝিয়েছি, ফের দৈনন্দিন কাজে ফিরে গিয়েছে ও। কিন্তু আত্মহত্যার দিকে বিষয়টা কখনই যায়নি। তাই আমি ঘটনার তদন্ত দাবি করছি। চুল উঠে যাচ্ছিল বলে আমার ছেলে আত্মহত্যা করেছে, পুলিশের এই বক্তব্য আমি মেনে নিতে পারছি না”, জানিয়েছেন বাসন্তী।

1 মন্তব্য

  1. Ever heard of the phrase ‘Tipping point?’ There can be multiple factors for depression, but usually a single factor pushes the guy over the cliff. In this case that may be the baldness. The police can’t be blamed to point the finger at the last straw that broke the camel’s back.

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here