দেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন! পাঁচ জন উপমুখ্যমন্ত্রী রাখার সিদ্ধান্ত এই মুখ্যমন্ত্রীর

0
মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতে অন্ধ্রের নবনির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী জগন্মোহন রেড্ডি।

ওয়েবডেস্ক: অনেক রাজ্যে মুখ্যমন্ত্রীর পদের পাশাপাশি উপমুখ্যমন্ত্রীর পদ একজনকে দেওয়া হয়। আবার অনেক রাজ্যে সরকারি ভাবে কেউ উপমুখ্যমন্ত্রী হন না। কিন্তু একটি রাজ্যে পাঁচজন উপমুখ্যমন্ত্রী! এটা কি আগে কখনও হয়েছে?

না, আগে এ রকম কিছু হয়নি। দেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন এই ঘটনা ঘটাতে চলেছেন অন্ধ্রপ্রদেশের নবনির্বাচিত মুখ্যমন্ত্রী জগন্মোহন রেড্ডি। ঠিক করেছেন পাঁচ জনকে উপমুখ্যমন্ত্রী করবেন তিনি। শনিবার নতুন মন্ত্রীরা শপথ নেবেন।

একাধিক উপমুখ্যমন্ত্রীর নজির দেশে রয়েছে, এবং সে ক্ষেত্রে সামনে এসেছে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের তত্ত্বই। যেমন ২০১৭ সালে যোগী আদিত্যনাথকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী করার পরে তাঁর ডেপুটি করা হয় কেশবপ্রসাদ মৌর্য এবং দীনেশ শর্মাকে। দুই গোষ্ঠীকে সন্তুষ্ট রাখার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিল বিজেপি, এমনই জল্পনা ছিল রাজনৈতিক মহলে। কিন্তু জগনের ক্ষেত্রে কোনো গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের গল্পই নেই।

আরও পড়ুন ফের সিবিআইয়ের জেরার মুখে রাজীব কুমার, প্রশ্ন করা হতে পারে লাল ডায়েরি এবং পেন ড্রাইভ নিয়ে

তফশিলি জাতি, তফশিলি উপজাতি, অন্যান্য পিছিয়ে পড়া শ্রেণি (ওবিসি), সংখ্যালঘু এবং কাপু জাতি থেকে একজন করে বিধায়ক বেছে এই উপমুখ্যমন্ত্রীর আসনে বসাবেন জগন। এ ছাড়াও জগনের সিদ্ধান্ত তাঁর মন্ত্রিসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যই হবে তুলনায় দুর্বল জাতির থেকে।

উল্লেখ্য, টিডিপিকে উড়িয়ে রাজ্যে ল্যান্ডস্লাইড জয় হয়েছে জগনের ওয়াইএসআর কংগ্রেসের। ১৭৫টি আসনের মধ্যেই একাই দেড়শোর কাছাকাছি আসন জিতেছে তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.