মহুয়া মৈত্র। প্রতীকী ছবি

কলকাতা: ‘কালী’ তথ্যচিত্রের পোস্টার নিয়ে শুরু হওয়া বিতর্ক এখনও চলছে। এরই মধ্যে রবিবার স্বামী আত্মস্থানন্দের শতবর্ষ উপলক্ষ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কণ্ঠে শোনা গিয়েছে মা কালী প্রসঙ্গ। তাঁর ‘কালী কথা’ নিয়ে এ বার পালটা টুইটে সরব হয়েছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র।

শ্রীরামকৃষ্ণ থেকে বিবেকানন্দর কালী-ভক্তির কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী এ দিন বলেছেন, “শ্রীরামকৃষ্ণদেব কালীর উপাসক ছিলেন। তিনি নিজের জীবন দেবীর পায়ে সমর্পণ করেছিলেন। রামকৃষ্ণ বলতেন, এই বিশ্ব চরাচরে ব্যাপ্ত মা কালীর চেতনা । এই চেতনাই বাংলা ও সারাদেশের মানুষের বিশ্বাসের মধ্যে নিহিত রয়েছে। স্বামী বিবেকানন্দের মতো বিরাট মাপের মানুষও মা কালীর সামনে শিশুর মতো হয়ে যেতেন। যখনই বেলুড় মঠ যাই, গঙ্গার পাড়ে বসি, দক্ষিণেশ্বরে মা কালীর মন্দির দেখি গঙ্গার পাড়ে, একাত্ম বোধ করি”।

মোদীর মন্তব্যকে সামনে রেখেই ফের পুরনো বিতর্ক উসকে দেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য। তিনি টুইটে লেখেন, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভক্তিভরে মা কালীর কথা বলছেন। অন্য দিকে, তৃণমূলের এক সাংসদ মা কালীকে অপমান করেছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর মন্তব্যের প্রতিবাদ করার বদলে তাঁকে রক্ষা করছেন”।

মহুয়া টুইটারে পাল্টা লেখেন, “বাংলায় বিজেপির ট্রোল ইন চার্জ-এর জন্য পরামর্শ। আপনার প্রভুদের বলুন, তাঁরা যা জানে না, সেটা নিয়ে যেন মন্তব্য না করে। দিদি ও দিদি বলার পরিণাম ভুগতে হয়েছে। এবার মা ও মা বলার ফলও ভুগতে হবে”।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে রাজ্যে অনেকগুলি দলীয় সভায় এসেছিলেন মোদী। সেই সব সভা থেকে মমতাকে উদ্দেশ্য করে তাঁর ‘দিদি ও দিদি’ সংলাপ যথেষ্ট বিতর্ক তৈরি করেছিল। ঠিক যে ঢঙে তিনি এই শব্দ ব্যবহার করেছিলেন, তাতে গেরুয়া শিবির উজ্জীবিত হলেও অনেকেরই কানে বেজেছিল বলে শোনা যায়। ওই মন্তব্যের খেসারত দিতেও হয়েছিল ভোটের ফলাফলে!

আরও পড়তে পারেন:

শেষমেশ শিয়ালদহ মেট্রো স্টেশনের উদ্বোধনে আমন্ত্রণ মুখ্যমন্ত্রীকে, বিতর্কের জেরেই সিদ্ধান্ত?

এক সঙ্গে ৭৩ লক্ষেরও বেশি সুবিধাভোগীকে পেনশন, শীঘ্রই কেন্দ্রীয় ব্যবস্থা আনছে ইপিএফও

বিড়লা তারামণ্ডলের সামনে দুর্ঘটনা, বাসের ধাক্কায় জখম ২ পথচারী

বৈঠকে নেই গোয়ার ৩ কংগ্রেস বিধায়ক, বিজেপি-র সঙ্গে যোগাযোগ কয়েক জনের

বাবুল সুপ্রিয়কে বড়ো দায়িত্ব দিল তৃণমূল

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন