কয়েক দিন আগেই ওড়িশার দানা মাঝির মৃত স্ত্রীর দেহ নিয়ে কিলোমিটার হাঁটার খবরে সোরগোল পড়ে গেছিল গোটা দেশে। সেই রেশ কাটতে না কাটতেই কানপুরে চিকিৎসা না পেয়ে বাবার কাঁধেই মৃত্যু হল ১২ বছরের ছেলের। অভিযোগ, জেএসভিএম মেডিকেল কলেজের ডাক্তারদের অবহেলার জন্যই মৃত্যু হয়েছে কিশোর অংশুর। যদিও মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ অস্বীকার করেছেন এই অভিযোগ। অধ্যক্ষ নভনীত কুমার বলেছেন, মৃত অবস্থাতেই হাসপাতালে আনা হয়েছিল তাকে।

অংশুর বাবা সুনীল কুমারের বক্তব্য, গত ২৮ আগস্ট জ্বরে ভুগতে থাকা ছেলেকে নিয়ে মেডিকেল কলেজের হ্যালেট হাসপাতালে আসেন তিনি। কিন্তু চিকিৎসকরা তাকে বিভিন্ন বিভাগে ঘোরাতে থাকেন। সেই প্রক্রিয়াতেই মৃত্যু হয় কিশোরের।

ঘটনার তদন্তের জন্য তিন চিকিৎসককে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। তিন দিনের মধ্যেই রিপোর্ট দেবে এই কমিটি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here