bjp flag down

ওয়েবডেস্ক: গত ২৬ মে কেন্দ্রে বিজেপি সরকারের ৪ বছর পূর্তি হয়েছে। একের পর এক উপনির্বাচনে পরাজয়ে আপাতত কিছুটা চাপে মোদী-অমিত শাহ জুটি। সেই চাপ থেকে বেরিয়ে ২০১৯-এ ফের সরকারে আসীন হতে নানা সাংগঠনিক কর্মসূচি নিয়েছে বিজেপি। তার মধ্যে একটি হল, বিভিন্ন বিখ্যাত মানুষের সঙ্গে সরাসরি সম্পর্ক স্থাপন। এই কর্মসূচিতে বিজেপির ৪০০০ কর্মী ১ লক্ষ মানুষের সঙ্গে দেখা করবেন। আর সভাপতি অমিত শাহ নিজে দেখা করবেন ৫০ জনের সঙ্গে। এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘সম্পর্ক ফর সমর্থন’। অর্থাৎ সমর্থন লাভের জন্য সম্পর্ক স্থাপন।

এই কর্মসূচির অধীনে গত ২৯ মে প্রাক্তন সেনাপ্রধান দলবীর সিং সুহাগ ও সংবিধান বিশেষজ্ঞ সুভাষ কাশ্যপের সঙ্গে দেখা করেন অমিত শাহ। সোমবার তিনি দেখা করেছেন যোগগুরু বাবা রামদেবের সঙ্গে। এদের সকলের হাতেই বিজেপি সরকারের গত চার বছরের কাজের খতিয়ান তুলে দিয়েছেন অমিত। অমিতের বক্তব্য, ২০১৪ সালের ভোটেও রামদেব তাঁদের সাহায্য করেছিলেন, এবারও যাতে তিনি সাহায্য করেন, সেই অনুরোধ করতেই বাবার সঙ্গে দেখা করেছেন তিনি। অমিতের পাশে দাঁড়িয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের কাজের প্রশংসা করেছেন রামদেবও। অমিত আরও বলেছেন, রামদেব যদি বিজেপির পাশে দাঁড়ান, তাহলে তাংর কোটি কোটি ভক্তের থেকে বিজেপির সমর্থন আদায় করতে অনেকটাই সুবিধা হবে।

এর আগে গত ১ জুন ১৯৮৩ সালের বিশ্বকাপজয়ী ভারত অধিনায়ক কপিল দেবের সঙ্গে দেখা করেন অমিত। কপিলের বাড়িতে কপিল ও তাঁর স্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠকও করেন তিনি। তাঁর হাতেও তুলে দেন বিজেপির কাজের খতিয়ান। আগামী লোকসভা নির্বাচনে কপিলের সাহায্যও চান। কপিলদেব মুখে কিছু না বললেও সূত্রের খবর ২০১৯ সালে বিজেপির প্রার্থী হতেই পারেন হরিয়ানা হারিকেন। তাছাড়া কপিল দেবের মতো ব্যক্তিত্ব বিজেপির হয়ে প্রচার করলে দেশে বিশেষত উত্তর ভারতে তার যথেষ্ট প্রভাব পড়তে পারে বলে ধারণা বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here