লকডাউনের মাঝেই পুণ্যার্থীদের ঢল। ছবি: দ্য টেলিগ্রাফ থেকে

ওয়েবডেস্ক: আগামী ১ জুন থেকে মন্দির খুলে দিচ্ছে কর্নাটক সরকার। করোনভাইরাস লকডাউন চালু হওয়ার পর এই প্রথম কোনো রাজ্য সরকার এ হেন সিদ্ধান্ত নিল।

লকডাউনের সঙ্গেই ধর্মীয়স্থানগুলি বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তবে চতুর্থ পর্যায়ের লকডাউনের মেয়াদ যে হেতু আগামী ৩১ মে শেষ হওয়ার কথা, সে দিকে তাকিয়েই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে কর্নাটক রাজ্য সরকার।

জানা গিয়েছে, এ বিষয়ে খুব শীঘ্রই একটি স্ট্যান্ড্রার্ড অপারেটিং প্রোটোকল বা এসওপি জারি করা হবে।

সপ্তাহ দুয়েক আগে লকডাউনের মধ্যেই কর্নাটকের রামনগর জেলার কালাগোন্ডাহাল্লি গ্রামের একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান নিয়ে প্রবল বিতর্কের সৃষ্টি হয়। করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় কোনো রকমের স্বাস্থ্যসুরক্ষার নিয়ম না মেনেই কয়েক হাজার মানুষ ওই অনুষ্ঠানে জড়ো হন।

লকডাউনকে প্রহসনে পরিণত করে ন্যূনতম মাস্ক ব্যবহার না করেই ঠেসাঠেসি করে উৎসবে অংশ নেন কয়েক হাজার মানুষ। পরে বিতর্কে বিদ্ধ হয়ে জেলা প্রশাসন একটি মন্দিরের পূজারিকে গ্রেফতার করে।

এর পর শোনা যায় অনলাইনে পুজো চালু করা হবে কর্নাটকে। এখন আবার শোনা যাচ্ছে আগামী ১ জুন থেকেই মন্দির খুলে দেওয়া হবে।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন