ওয়েবডেস্ক: দেশ যে এতটাই অমানবিকতার দোরগোড়ায় এসে দাঁড়িয়েছে, বুঝেও যেন বুঝতে পারছিলেন না কেউই! কিন্তু কাথুয়ায় হিন্দু মন্দিরে মুসলিম বালিকার গণধর্ষণ এক টানে চোখের সামনে ঝুলতে থাকা পর্দাগুলোকে ছিঁড়ে দিল। এবং শুরু হল প্রতিবাদ। যার সুরে স্বর মিলিয়েছেন বলিউডের নায়ক, নায়িকারাও।

করণ জোহর তাঁর টুইটে আতঙ্ক প্রকাশ করে ঘটনার বিচার দাবি করেছেন।

তেমনই অক্ষয় কুমার বুঝিয়ে দিয়েছেন যে সমাজের শিকড়ে ঘুণ ধরে গিয়েছে। সুবিচারের প্রার্থনা জানিয়ে লিখেছেন নায়ক, আসিফার মুখ বার বার ভেসে উঠছে তাঁর চোখের সামনে।

সোনম কাপুরের প্রতিবাদ কিন্তু এতটাও নম্র নয়। সাফ সাফ তিনি ধিক্কার জানিয়েছেন উগ্র হিন্দুত্ববাদকে।

তাঁর মতোই গর্জে উঠে দাবি করেছেন ফারহান আখতার- এই ঘটনায় ভয় না পেলে আমরা মানুষই নই! আসিফার জন্য বিচার না চাইলে আমাদের অস্তিত্বেরও কোনো মানে হয় না!

রিচা চড্ডা আবার অন্য দিকে ঘটনার জন্য সরাসরি আঙুল তুলেছেন প্রশাসনের দিকে। যে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নারী, সেখানে এমন ঘটনা কেন ঘটে, সওয়াল করছেন তিনি।

রিচার মতো বীর দাসের ক্ষোভও ঘটনাকে কেন্দ্র করে আছড়ে পড়েছে প্রশাসন এবং সরকারের দিকে। পাশাপাশি তীব্র বিদ্রুপের সঙ্গে জানিয়ে দিতেও কুণ্ঠা বোধ করছেন না তিনি- এই ঘটনার কোনো প্রতিকার হবে না।

বিশাল দাদলানি পাশাপাশি ঘটনায় দায় স্বীকার করেছেন সারা দেশের হয়ে। তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্ট উপলব্ধি করাচ্ছে যে এমন হিন্দুত্ববাদী সরকারকে নির্বাচন করেছে দেশের মানুষই!

আর আয়ুষ্মান খুরানা স্পষ্ট করে দিয়েছেন ভালোবাসা এবং দণ্ডদানের পার্থক্যটিকে। জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে একটি শিশুর যে ভালোবাসা ছাড়া আর কিছুই প্রাপ্য নয় এবং তার ধর্ষকের শাস্তি- সে কথা লিখতে কুণ্ঠা বোধ করেননি তিনি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন