নাগরিকত্ব বিল: সরাসরি সঙ্ঘ পরিবারের উদ্দেশে তোপ দাগলেন বিজয়ন

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: সংসদের উভয়কক্ষে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল পাশের পর অগ্নিগর্ভ গোটা উত্তর-পূর্ব ভারত। অসম এবং ত্রিপুরায় বিভিন্ন জায়গায় ইন্টার পরিষেবা বন্ধ অথবা কারফিউ জারি করেও বিক্ষোভ দমিয়ে রাখা যাচ্ছে না। এমন পরিস্থিতিতে ‘ভারতীয় গণতন্ত্র এবং সংবিধান বিপদে’ পড়েছে বলে মন্তব্য করলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন।

টুইটারে বিজয়ন লিখেছেন, “আমাদের গণতন্ত্র বিপদে পড়েছে। সিএবি (সি‌টিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ট বিল) হাতে নিয়ে সঙ্ঘ পরিবার সংসদে যে সংখ্যাগরিষ্ঠতা উপভোগ করেছে, তা দিয়েই ভারতীয় গণতন্ত্র ও সংবিধানের ভিত উপড়ে ফেলার জন্য ব্যবহার করেছে। এটি ধর্মনিরপেক্ষতাকে প্রত্যাখ্যান করার শামিল। বিজেপি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে, তাদের প্রধান রাজনৈতিক তাৎপর্য সাম্প্রদায়িকতা। আমাদের অবশ্যই এটাকে প্রতিহত করতে হবে”।

নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে আগামী ১৯ ডিসেম্বর দেশ জুড়ে আন্দোলনের ডাক দিয়েছে বামফ্রন্ট-সহ অন্যান্য সহযোগী দলগুলি। বামফ্রন্টের অভিযোগ, গত বুধবার রাতে রাজ্যসভায় পাশ হওয়া নাগরিকত্ব বিল দেশের গণতান্ত্রিক চরিত্র বদলে দিচ্ছে।

যৌথ বিবৃতি সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি জানিয়েছেন, “বাম দলগুলি সারা দেশ জুড়ে আমাদের সমস্ত ইউনিটকে সিএবি-এনআরসি বিরুদ্ধে ১৯ ডিসেম্বর প্রতিবাদ কর্মসূচির আয়োজন করার আহ্বান জানিয়েছে”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.