kerala fishermen refuses ti accept money
মৎস্যজীবীদের ভূমিকা অনস্বীকার্য। ছবি: টুইটার

ওয়েবডেস্ক: কেরলের ভয়াবহ বন্যায় দুর্গত মানুষদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এসে গোটা দেশের মানুষের মন জয় করেছেন কেরলের মৎস্যজীবীরা। সেনা, নৌসেনা, বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর থেকে কোনো অংশে কম যায় না মৎস্যজীবীদের ভূমিকাও। ফের একবার মানুষের মন জয় করার মতো কাজ করলেন মৎস্যজীবীরা।

মৎস্যজীবীদের ভূমিকার কথা মাথায় রেখে তাঁদের সম্প্রদায়ের সবাইকে তিন হাজার টাকা করে দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন। সেই টাকা নিতে অস্বীকার করেছেন মৎস্যজীবীরা। ফোর্ট কোচির মৎস্যজীবী কাইস মহম্মদ একটি ভিডিও বার্তায় বলেন, “অসংখ্য মানুষকে উদ্ধার করতে পেরেছি বলে আমরা খুবই খুশি। আরও বেশি আনন্দিত কারণ আমাদের সৈন্য বলে আখ্যা দেওয়া হচ্ছে।”

আরও পড়ুন কেরলের জন্য কেন্দ্রের থেকেও বেশি অর্থসাহায্য ঘোষণা সংযুক্ত আরব আমিরশাহির

এরপরে বিজয়নের উদ্দেশে তিনি বলেন, “কিন্তু আমরা শুনেছি আপনি আমাদের সবাইকে তিন হাজার টাকা করে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন। স্যার, আপনার এই কথায় দুঃখ পেয়েছি। মানুষের প্রাণ বাঁচানোর জন্য আমরা কোনো টাকা চাই না।”

তবে মৎস্যজীবীদের নৌকা সরকার বিনামূল্যে সারিয়ে দেওয়ার যে ঘোষণা করেছে, তাকে স্বাগত জানিয়েছেন মৎস্যজীবীরা।

ভয়াবহ বন্যার মধ্যেই যে ছবিটা সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে সেটা হল মৎস্যজীবীদের অক্লান্ত পরিশ্রম। পথনমঠিট্টা, আলাপুঝা, এর্নাকুলাম এবং ত্রিশুর জেলায় তাঁদের ভূমিকা সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন