বিচ্ছেদের পথ ধরলেই উঠছে ধর্ষণের অভিযোগ! দায়ী বদলে যাওয়া সম্পর্কের প্রকৃতি, তাৎপর্যপূর্ণ পর্যবেক্ষণ কেরল হাইকোর্টের

সম্পর্কের প্রকৃতি বদলে যাচ্ছে আজকের তরুণ প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে। এই বিকশিত প্রকৃতি বেশ কিছু ধারাবাহিক ঘটনারও কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। দীর্ঘ দিন এক সঙ্গে থাকার পর বিচ্ছেদের দিকে ঝুঁকলে বা অন্য কাউকে বিয়ে করার পর ধর্ষণের অভিযোগের সংখ্যাও বৃদ্ধি পাচ্ছে। কেরল হাইকোর্টের পর্যবেক্ষণে তুলে ধরা হয়েছে এমনই তাৎপর্যপূর্ণ বিষয়।

কেন জামিন মঞ্জুর হল অভিযুক্তের?

কেরল হাইকোর্টের বিচারপতি বেচু কুরিয়ান থমাস বলেন, “তবে, একজন অংশীদারকে বিয়ের মিথ্যা প্রতিশ্রুতিতে যৌন সম্পর্ক স্থাপনে বাধ্য করা হয়ে থাকে, সবসময় সেটাও বোঝায় না।”

শুক্রবার এই পর্যবেক্ষণের উপর ভিত্তি করে নবনীত এন নাথ নামে এক আইনজীবীর জামিন মঞ্জুর করে আদালত। কেরলে কেন্দ্রীয় সরকারের প্যানেলের কৌঁসুলি নবনীত। এক সহকর্মী আইনজীবী তাঁর বিরুদ্ধে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ করেছিলেন। ওই মামলাতেই গ্রেফতার হন তিনি।

এ দিন কিছু শর্ত সাপেক্ষে জামিন মঞ্জুর করার সময় বিচারপতি কুরিয়ান বলেন, অভিযুক্তের বিরুদ্ধে অভিযোগগুলি গুরুতর। তাই বলে আবেদনকারীরও ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত হওয়ার সম্ভাবনা নেই। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে আগে কোনো অপরাধের রেকর্ড নেই।

বহু দিন এক সঙ্গে থাকার পর অন্যত্র বিয়ে!

নবনীতের বিরুদ্ধে অভিযোগ, এক সবকর্মী আইনজীবীর সঙ্গে চার বছরেরও বেশি সময় ধরে সম্পর্ক ছিল তাঁর। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তিনি অন্য এক মহিলাকে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন।

এ কথা জানান পরই অভিযোগকারিণী নবনীতের বাগদত্তার সঙ্গে একটি হোটেলে দেখা করেন। সেখানেই হাতের শিরা কেটে আত্মহত্যার চেষ্টাও করেন তিনি। যথারীতি পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগের ভিত্তিতে গত মাসে নবনীতকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এর পরে তিনি জামিন চেয়ে কেরল হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন।

নবনীতের আইনজীবী আদালতে জানান, অভিযোগকারিণীকে বিয়ে করার একশো শতাংশ উদ্দেশ্য ছিল নবনীতের। যে কারণে তাঁদের মধ্যে বহু বছর ধরে যৌন সম্পর্ক বজায় ছিল। সেটা হয়েছিল উভয়ের সম্মতিতেই। কিন্তু তাঁদের সম্পর্কে বাধাও ছিল। কারণ, তাঁরা দু’জনে পৃথক ধর্মের। নবনীতের আইনজীবীর দাবি, সব জেনেশুনেও সুযোগ নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন অভিযোগকারিণী।

যা বলেননি অভিযোগকারিণী…

বিচারপতি বলেন, চার বছরেরও বেশি সময় ধরে ওই সম্পর্ক টিকে ছিল। প্রমোদ সূর্যভান পওয়ার বনাম মহারাষ্ট্র রাজ্য সরকার মামলায় সুপ্রিম কোর্টের বিচারপ্রক্রিয়া এই মামলার জেরে প্রভাবিত হতে পারে। কারণ, কেরলের ওই অভিযোগকারিণী কোথাও বলেননি যে, শুধুমাত্র বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েই অভিযুক্ত তাঁর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিল।

আরও পড়তে পারেন:

বক্তৃতা করার সময় গুলিবিদ্ধ, মৃত্যু হল জাপানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের

এ বার বিদ্যুতের খরচও বাড়বে, জানুন ইউনিট প্রতি কতটা

কেন্দ্র ফিরিয়েছে জেড-সুরক্ষা, আপাতত অর্জুন সিংহের নিরাপত্তার দায়িত্ব রাজ্যের, নির্দেশ হাইকোর্টের

জাপানের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে গুলিবিদ্ধ, অবস্থা গুরুতর

‘দম থাকলে গ্রেফতার করুক’, তৃণমূলকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন দিলীপ

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন