কান্নুর: প্রকাশ্যে গরু কেটে কেন্দ্রের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তিনজন যুব কংগ্রেস নেতাকে সাসপেন্ড করল কেরালা কংগ্রেস। পশু বাজারে কাসাইখানার জন্য গবাদি পশু কেনাবেচা করা যাবে না —কেন্দ্রেই এই নির্দেশের বিরুদ্ধে কান্নুর যুব কংগ্রেসের কয়েকজন সদস্য বাছুর কেটে তার মাংস বিলি করে। এই ঘটনার পরদিন কান্নুর যুব কংগ্রেসের সভাপতি রাজীল মাকুট্টির বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে যুব মোর্চার এক সদস্য।

শনিবার ট্রাকে করে একটি বাছুর এনে প্রকাশ্যে কাটে যুব কংগ্রেসের কয়েকজন সদস্য। সেই মাংস বিলিও করা হয় এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে। এইভাবে প্রকাশ্যে বাছুর কাটায় অস্বস্তিতে পড়ে কংগ্রেস। শনিবারই যুব কংগ্রেসের পক্ষ থেকে একটি বিবৃতি দিয়ে জানানো হয়, এই ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত তারা যুব কংগ্রেসের কেউ নয়। ‘যদি কেউ জড়িত থাকে তবে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। খোদ কংগ্রেস সহ-সভাপতি রাহুল গান্ধী এই ঘটনাকে, ‘ভাবনাবিহীন এবং বর্বরোচিত’ কাজ বলে উল্লেখ করেন।

কেরল বিজেপি সভাপতি কুম্নানাম রাজাশেখরণ ওই গোহত্যার ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেন। সিমিএম এই ঘটনার নিন্দা করে বলেছে, এই ধরনের প্রতিবাদ সঙ্ঘ পরিবারেরই হাত শক্ত করবে।

নিষেধাজ্ঞা রুখতে পাল্টা আইন আনছে কেরল সরকার

পশুবাজারে কসাইখানার জন্য গবাদি পশু কেনাবেচার উপর নিষেধাজ্ঞাকে রুখতে পাল্টা আইন আনছে কেরালা। ইতিমধ্যে কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছে চিঠি দিয়েছেন। সূত্রে জানা গিয়েছে এবার আইন আনার পরিকল্পনা করছে রাজ্য সরকার।

মাদ্রাজ আইআইটিতে বিফ-পার্টি

মোদি সরকারের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে মাদ্রাজ আইআইটিতে বিফ-পার্টি করল ছাত্ররা। জনা পঞ্চাশেক ছাত্র এই পার্টিতে অংশ নেয়।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন