kasauli hotel owner

শিমলা: দু’দিন আগে সরকারি এক আধিকারিককে গুলি করে খুন করেছিলেন কসৌলির এক হোটেল মালিক। বৃহস্পতিবার রাতে উত্তরপ্রদেশের মথুরা থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের কাছে তিনি জানিয়েছেন, ওই আধিকারিক ঘুষ নিতে অস্বীকার করায় রাগের মাথায় তাঁকে খুন করে দেন তিনি।

গত মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশমতো হিমাচলের কসৌলিতে একটি হোটেল ভাঙার কাজে তদারকি করতে যান সহকারী টাউন প্ল্যানার শৈলবালা শর্মা। নারায়ণী গেস্ট হাউস নামক ওই হোটেলটির কয়েকটি তলা ভাঙার নির্দেশ দিলেও সেটা শুনতে রাজি ছিলেন না হোটেল মালিক তথা হিমাচল প্রদেশ বিদ্যুৎ নিগমের কর্মী বিজয় সিংহ। কিছুক্ষণ পরেই রেগে অগ্নিশর্মা হয়ে যান বিজয়। নিজের বন্দুক বার করে শর্মার ওপরে গুলি চালিয়ে দেন তিনি। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। এর পরেই পলাতক হয়ে যান ওই হোটেল মালিক।

হিমাচল পুলিশ এবং দিল্লি পুলিশের যৌথ অভিযানে মথুরার একটি গোপন ডেরা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। এর পরেই তাঁকে জেরা শুরু করে পুলিশ। জেরায় তিনি বলেন, “আমার হোটেলটাকে রেহাই দেওয়ার জন্য আমি বারবার প্রশাসনের কাছে আবেদন করেছিলাম। কিন্তু প্রশাসনের শুধুমাত্র একটাই লক্ষ্য ছিল, আমার হোটেলটা ভাঙা।” তিনি আরও জানান যে, ওই আধিকারিককে ঘুষ দিতে চাইলেও তিনি নিতে অস্বীকার করেন। এর পরেই রাগের মাথায় গুলি চালিয়ে দেন তিনি।

শুক্রবার সকালে অভিযুক্তকে আদালতে তোলা হলে আদালত তাঁকে পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছে।

শুধুমাত্র অভিযুক্ত ব্যক্তির হোটেলটিই নয়, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে শুক্রবার কসৌলির তেরোটা হোটেল ভাঙা পড়েছে বলে জানিয়েছে হিমাচল পূর্ত দফতর।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here