বেঙ্গালুরু: উত্তরপ্রদেশের পর এ বার কর্নাটক থেকে চাপ বাড়ল কংগ্রেসের ওপরে। কংগ্রেসের সমর্থনে গদিতে বসা মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী জানিয়ে দিলেন, কংগ্রেস যদি তাঁর দল জেডিএসকে ‘তৃতীয় শ্রেণির দল’ হিসেবে দেখে, তা হলে লোকসভা নির্বাচনে একা লড়বে তারা।

সংবাদসংস্থা পিটিআইকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমন ভাবেই সতর্ক করেছেন কুমারস্বামী। তবে নরেন্দ্র মোদীর ক্যারিশমা আগের থেকে অনেকটাই কমে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁর সমর্থন রাহুল গান্ধীর দিকেই থাকবে বলে সাফ জানিয়েছেন তিনি। যদিও তাঁর মতে, রাহুলকে এখনও প্রধানমন্ত্রীর পদে বসাতে রাজি নয় অনেক বিরোধী দলই।

কুমারস্বামী মনে করেন, লোকসভা নির্বাচনে এক সঙ্গে লড়া উচিত কংগ্রেস এবং জেডিএসের। তাঁর কথায়, “রাজ্যের ক্ষমতা দখল করার প্রাথমিক উদ্দেশ্য ছিল বিজেপিকে ক্ষমতা থেকে দূরে রাখা। সেই কারণেই আমি মনে করি দুই দলের এক সঙ্গেই নির্বাচনে লড়া উচিত।”

আরও পড়ুন মায়াবতী-অখিলেশের জোট ঘোষণার পর দিনই কংগ্রেসের ‘মাস্টার স্ট্রোক’!

কর্নাটকে ক্ষমতা দখল করার পরে দেশে রাজনৈতিক পরিস্থিতি অনেকটাই বদলেছে বলে মনে করেন কুমারস্বামী। তিনটে রাজ্য হেরে বিজেপি বেশ কিছুটা দুর্বল, অন্য দিকে কংগ্রেস এখন বেশ উজ্জীবিত।

কিন্তু তা সত্ত্বেও কুমারস্বামীর সাবধানবাণী, অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস যেন না দেখাতে যায় কংগ্রেস। তাঁর কথায়, “কংগ্রেসের উচিত আমাদের সম্মান করা। তৃতীয় শ্রেণির দল হিসেবে দেখলে ফল ভালো হবে না।”

উল্লেখ্য, রাজ্যের ২৮টা লোকসভা আসনের মধ্যে কংগ্রেসের থেকে ১২টা আসন দাবি করেছে জেডিএস। যদিও জেডিএসকে আরও কম আসন দেওয়ার পক্ষপাতী কংগ্রেস। এই নিয়ে কংগ্রেসের মধ্যেই যথেষ্ট দ্বন্দ্ব রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বারের লোকসভা নির্বাচনে ১৭টা আসন জিতেছিল বিজেপি, ৯’টা কংগ্রেস এবং বাকি দু’টি জেডিএস। এখন দেখার দক্ষিণের এই শরিককে কংগ্রেস খুশি করতে পারে কি না।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here