পটনা: আগে ছিল, ‘যব তক রহেগা সামোসে মে আলু, তব তক রহেগা বিহার মে লালু’। এখন চলছে, ‘লালু বিন চালু ই বিহার না হোয়ি’।

বিহারের এনডিএ সরকারের পতন এখন শুধুই সময়ের অপেক্ষা মাত্র। মঙ্গলবার বিজেপি-র সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন জেডিইউ প্রধান তথা বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার (CM Nitish Kumar)। জেডিইউ-র সংসদীয় বোর্ডের সভাপতি উপেন্দ্র কুশওয়াহা ঘোষণা করেছেন, জেডিইউ নতুন জোটে যোগ দেবে। বিকেল ৪টে নাগাদ রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করবেন মুখ্যমন্ত্রী। এনডিএ থেকে আলাদা হয়ে মহাজোটের সরকার গঠনের জন্য বিধায়কদের সমর্থনের চিঠি হস্তান্তর করবেন। মহাজোটের নতুন নীতীশ সরকারে দু’জন উপমুখ্যমন্ত্রী থাকবেন। তাঁদের মধ্যে আরজেডি থেকে তেজস্বী যাদবের (Tejashwi Yadav) নাম ঠিক করা হয়েছে।

এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় দাপিয়ে বেড়াচ্ছে লালুপ্রসাদ যাদবকে নিয়ে বাঁধা এক গান। তাঁর মেয়ে রোহিনী আচার্য এ দিন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে “কিংমেকার” দাবি করে একটি ভোজপুরি গান টুইট করেছেন: “লালু বিন চালু ই বিহার না হোয়ি (লালু ছাড়া বিহার চলতে পারে না)।” হিন্দিতে লিখেছেন, “অভিষেকের জন্য প্রস্তুত হোন, লণ্ঠন বাহক আসছে”। লালুপ্রসাদের আরজেডি-র নির্বাচনী প্রতীক লণ্ঠনের কথা উল্লেখ করেছেন তাঁর মেয়ে।

চলতি বছরের শুরুর দিকে বিহার বিধান পরিষদ নির্বাচনের আগে প্রকাশিত হয়েছিল ভোজপুরি গায়ক-অভিনেতা খেসারি লাল যাদবের গাওয়া গানটি। আরজেডি প্রার্থীর জন্য এই গান তৈরি করা হয়েছিল। যাতে লালু-পুত্র তেজস্বীরও প্রশংসা রয়েছে। গানের একটি কলি-“তেজস্বী কে বিনা সুধার না হোয়ি” (তেজস্বীকে ছাড়া কোনো অগ্রগতি হতে পারে না)।

আরও পড়তে পারেন:

তেজস্বীর সঙ্গে মাসতিনেকের বোঝাপড়ার ফল নীতীশের বিজেপি-বিচ্ছেদ! পাটিগণিত কী বলছে

ফের এক বার বিজেপি-র সঙ্গে জোট ভাঙলেন নীতীশ কুমার, শীঘ্রই রাজ্যপালের দরবারে

ফের সিবিআই তলব! হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজন না থাকলেও ‘বেড রেস্ট’ দরকার, বলছেন অনুব্রতর চিকিৎসক

যৌনকর্মীদের সমস্ত মৌলিক অধিকার রয়েছে, কিন্তু আইন লঙ্ঘনের জন্য বিশেষ সুবিধা নয়: দিল্লি হাইকোর্ট

যৌনকর্মীদের রেশন, ভোটার আইডি, আধার দেওয়ার নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন