‘বাম জোট’-এরই জয় হল জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে। বিজেপি-র ছাত্র সংগঠন এবিভিপি-কে রুখতে এবার জোট করেছিল সিপিআইএমের এসএফআই ও সিপিআই (এমএল) লিবারেশন-এর ছাত্র সংগঠন আইসা। ছাত্র সংসদের চারটি আসনের মধ্যে চারটিই দখল করেছে তারা।

জোটের প্রার্থী মোহিত পাণ্ডে ছাত্র সংসদের প্রেসিডেন্ট এবং অমল পিপি ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে জয় লাভ করেছেন। তাবরেজ হাসান এবং শতরূপা চক্রবর্তী যথাক্রমে যুগ্ম সম্পাদক এবং সম্পাদক পদে জিতেছেন।

index-finalজওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদ নির্বাচনের সম্পূর্ণ ফল

বাম দুর্গ বলে পরিচিত জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় ১৪ বছর বাদে ২০১৫ সালে একটি আসনে জেতে এবিভিপি। তবে এবারের নির্বাচনে কার্যত দাঁড়াতেই পারেনি তারা এবং কংগ্রেসের ছাত্র সংগঠন এনএসইউআই।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে জেএনইউ ছাত্র সংসদের প্রেসিডেন্ট কানহাইয়া কুমারকে বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ নিয়ে বিতর্কের পর এটাই ছিল প্রথম ছাত্র সংসদের নির্বাচন। তাই খুব স্বাভাবিক ভাবে এই নির্বাচনকে ঘিরে নজর ছিল দেশের রাজনৈতিক মহলের। যদিও কানহাইয়া কুমারের সংগঠন এআইএসএফ এবারের ছাত্র সংগঠনের নির্বাচনে লড়েনি। তারা বাম জোটকে বাইরে থেকে সমর্থন করেছে।

উল্লেখযোগ্য ভাবে এবারে ছাত্র সংসদের নির্বাচনে ২ বছর আগে তৈরি বিরসা-অম্বেদকর-ফুলে স্টুডেন্ট অ্যাসোসিয়েশন তিনটি পদের লড়াইয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here