ত্রিপুরার লেনিন মূর্তির পুনঃস্থাপনে আর্থিক সাহায্যের আবেদন জানাল প্রশাসন

0

ওয়েবডেস্ক:  গত সোমবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল সেই ভিডিও। যেখানে স্পষ্ট ভাবে দেখা গিয়েছে, দক্ষিণ ত্রিপুরার বিলোনীয়ার কলেজ স্কোয়ারে ভ্লাদিমির লেনিনের ১১ ফুট উচ্চতার মূর্তিটিকে বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়ার দৃশ্য। তবে ওই এলাকায় কোনো সিসিটিভি না থাকায় তেমন কোনো ব্যবস্থা নিয়ে উঠতে পারেনি বলে জানিয়েছে প্রশাসন । কিন্তু দেশব্যাপী হইচই সৃষ্টি হওয়ার পর স্থানীয় পুর কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, ওই গুঁড়িয়ে যাওয়া মূর্তিটিকে পুনরায় স্থাপন করা হবে। তবে এর জন্য প্রয়োজন অর্থের। তা যদি কোনো ব্যক্তি বা রাজনৈতিক দল জোগান দেয়, তা হলে ওই একই জায়গায় মূর্তিটির পুনঃস্থাপনে কোনো সমস্যা নেই।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় ‘তাণ্ডব’ নিয়ে রাজনাথ-মোদী কথা, দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ রাজ্যকে

বিলোনীয়া পুরসভার মুখ্য কার্যনির্বাহী আধিকারিক অমিত ঘোষ সংবাদ মাধ্যমকে জানান, ‘আমরা মূর্তিটিকে  সংস্কার করে পুনঃস্থাপন করতে ইচ্ছুক। কিন্তু সাধারণ মানুষ বিষয়টিকে কী ভাবে নেবে, সেটাও দেখার। তবে বর্তমানে পুরসভার নিজস্ব জায়গাতেই ওই ভগ্ন মূর্তিটি রাখার পরিকল্পনা করা হয়েছে। তবে সেটিকে খোলা জায়গায় রাখা হবে , না কি কোনো ঘেরা জায়গায় রাখা হবে, তা স্থির হয়নি।

আরও পড়ুন: ত্রিপুরায় তাণ্ডবে ‘উসকানি’ বিজেপি নেতাদের, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি সিপিআইএমের

জানা গিয়েছে, ২০১৫ সালে স্থাপিত ওই লেনিন মূর্তিটির জন্য ব্যয় হয়েছিল প্রায় পাঁচ লক্ষ টাকা। দলীয় ভাবে সিপিএম ওই মূর্তির জন্য টাকা খরচ করেনি। শাসক বামফ্রন্ট সরকার গ্রামীণ কর্মনিশ্চয়তা প্রকল্পের তহবিল থেকে ওই অর্থ বরাদ্দ করেছিল।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন