kisan rally

নয়াদিল্লি: ২০৭টি কৃষক সংগঠনের সংসদ অভিযান ঠেকাতে আগাম বন্দোবস্ত সেরে রেখেছিল দিল্লি পুলিশ। প্রায় ৩৫ হাজারের একটি মিছিলকে শুক্রবার সকালেই আটকে দেওয়া হয় যন্তরমন্তরে। আন্দোলনকারীরা বাধ্য হয়ে পার্লামেন্ট স্ট্রিট থানার কাছেই প্রতিবাদসভায় অংশ নেন। সেখানে এনসিপি নেতা শরদ পওয়ার এবং দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল-সহ কৃষক সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্ব বক্তব্য রাখেন। উত্তেজনা এড়াতে কয়েক হাজার পুলিশ দিয়ে মিছিল আটকালেও প্রতিবাদের অনুরণন কিন্তু  শোনা যায় সংসদের দেওয়ালেও।

kisan rally

এ দিনের প্রতিবাদসভায় অংশগ্রহণের করেন কংগ্রেস সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধীও। একই সঙ্গে ওই প্রতিবাদসভায় হাজির হন সীতারাম ইয়েচুরি, ফারুক আবদুল্লা এবং শরদ যাদবের মতো সর্বভারতীয় নেতৃত্ব।

kisan rally

গত বৃহস্পতিবার সকালেও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় এক লক্ষ কৃষক আনন্দ বিহার রেল স্টেশনে সমবেত হয়েছিলেন বলে জানানো হয়। সেখানে তাঁদের স্বাগত জানান বাম সমর্থিত ছাত্র সংগঠন আইসা।

সেখান থেকে তাঁরা দক্ষিণ-পূর্ব দিল্লি হয়ে রামলীলা ময়দানের উদ্দেশে রওনা দেন তাঁরা। শুক্রবার সকালে সমবেত কৃষকের একটি অংশ সংসদের উদ্দেশে যাত্রা করলে যন্তরমন্তরেই তাঁদের আটকে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: যন্তরমন্তরে আটকে দেওয়া হল আন্দোলনকারী কৃষকদের!

এই বিশালাকার কৃষক পদযাত্রায় অংশ নিয়েছেন গোটা দেশের বিভিন্ন প্রান্তের অবহেলিত কৃষক সম্প্রদায়। তবে এর মধ্যে আটটি রাজ্য থেকেই অংশগ্রহণের হার তুলনা মূলক ভাবে বেশি। যার মধ্যে রয়েছে, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলঙ্গনা, গুজরাত, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ এবং পশ্চিমবঙ্গ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here