gujarat
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: লোকসভার ছয় দফার ভোটগ্রহণের পর হাতে বাকি আর মাত্র একটা। ফলাফল আগামী ২৩ মে। তার আগেই ফলাফলের আনুমানিক ইঙ্গিত দিয়ে রাখল সাট্টা বাজার।

সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের সূত্র মতে, দেশের ৫৪৩টি আসনের মধ্যে কংগ্রেস এ বার ১০০-র গণ্ডি টপকাতে পারবে না বলেই মনে করছে মধ্যপ্রদেশের সব থেকে বড়ো সাট্টা মার্কেটের বুকিরা। একই ভাবে গুজরাতের সুরাত-কেন্দ্রিক একটি বৃহৎ সাট্টা বাজারের হিসাবে, কংগ্রেসের প্রাপ্ত আসন সংখ্যা খুব বড়োজোর ৭০-৮০টি আসনের মধ্যেই থেমে থাকতে পারে। তবে শুধুমাত্র সাম্প্রতিক ঘটনাবলির উপর নজর রেখেই যে এমন অনুমান করা হয়েছে, সে কথাও জানাচ্ছে তারা।

এক নজরে ষষ্ঠ দফার ভোটের পর বিজেপি এবং কংগ্রেসের আসনপ্রাপ্তির আনুমানিক হিসেব

বাজারের স্থানকংগ্রেসবিজেপি
ভোপাল, মধ্যপ্রদেশ১০০-র নীচে২২০
সুরাত, গুজরাত৭০-৮০২৪৬-২৪৮

মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে ১২০ বছরের একটি সাট্টা বাজারের হিসাব অনুযায়ী, এ বারের ভোট বিভিন্ন দিক থেকে অন্যান্য বারের থেকে সম্পূর্ণ আলাদা। এর আগেই মধ্যপ্রদেশের বিধানসভা ভোটের আগে ওই সাট্টা বাজার জানিয়েছিল, সে রাজ্যে কংগ্রেস  পেতে পারে ১২২টি আসন। অন্য দিকে বিজেপি পেতে পারে ৯০টি আসন। তবে ফলাফল ঘোষণার সময় দেখা যায়, কংগ্রেস এবং বিজেপি পেয়েছে যথাক্রমে ১১৪ এবং ১০৯টি আসন। অর্থাৎ, সাট্টা বাজারের আগাম অনুমানের সঙ্গে বাস্তবের ফারাক থাকলেও তাদের অনুমান মতোই সে রাজ্যে সরকার গড়েছে কংগ্রেস।

একই ভাবে এ বারের লোকসভা ভোটের পঞ্চম দফার পর ভোপালের সাট্টা বাজার জানিয়েছিল, বিজেপি একক ভাবে পেতে পারে ২৪০টি আসন। কিন্তু ষষ্ঠ দফার ভোট মিটে যাওয়ার পর দিন দশেকের মধ্যেই তারা মত পরিবর্তন করে জানায়, বিজেপির ঝুলিতে উঠতে পারে ২২০টি আসন।

অন্য দিকে সুরাত-কেন্দ্রিক ওই সাট্টা বাজারের হিসাবে, এনডিএ জোট পেতে পারে ৩২০-৩২৫টি আসন। বিজেপি একার শক্তিতে দখল করতে পারে ২৪৬-২৪৮টি আসন।

এ বারের লোকসভা ভোটের আগে থেকেই সাট্টা বাজারের দর অনুযায়ী তুলনামূলক ভাবে পাল্লাভারী ছিল বিজেপির। সাট্টা বাজারের দরের নিরিখেই এই আসন সংখ্যার কথা উঠে এসেছে। কারণ, তাদের হিসাব অনুযায়ী, রাজনৈতিক দলগুলির আসনপ্রাপ্তির উপরই নির্ভর করে সাট্টায় লগ্নিকারীদের লক্ষীলাভের বিষয়টি।

যদিও এর আগেই পুলিশ-প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছিল, ভোপালে এ ধরনের কোনো সাট্টা চক্র নেই। বেশ কিছু গ্যাং জড়ো হলেও লোকসভা ভোট নিয়ে কোনো চক্র চলছে না। তবে খবর পাওয়া মাত্রই প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here