Maharashtra Covid Crisis: ৩১ মার্চের পর সব থেকে কম দৈনিক সংক্রমণ মহারাষ্ট্রে

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: মহারাষ্ট্র দিয়েই দেশে আছড়ে পড়েছিল করোনাভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ। সেই মহারাষ্ট্রে সেই ঢেউ স্তিমিত হতে শুরু করেছে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই ধীরে ধীরে কমছিল রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণ। কিন্তু সোমবার যেটা ঘটল তা স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের অনেকটাই চিন্তামুক্ত করেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ২৩৬ জন। একটা সময়ে ৬৯ হাজার দৈনিক সংক্রমণ রেকর্ড করা মহারাষ্ট্রে। গত বৃহস্পতিবারও ৬২ হাজার মানুষ আক্রান্ত হয়েছিলেন। কিন্তু তার পরের তিনটে দিন প্রায় অর্ধেক হয়ে গিয়েছে নতুন সংক্রমণ।

Loading videos...

এর পেছনে টেস্টের সংখ্যা কমা অবশ্যই একটা কারণ। রবিবার তুলনামূলক ভাবে অনেক কম নমুনা পরীক্ষা হয়। তার বিপরীতে যত জন আক্রান্ত হন, সেই ছবিই ফুটে ওঠে সোমবার। কিন্তু টেস্ট কমার পরেও যে ছবিটা স্বস্তির সেটা হল সংক্রমণের হারের ব্যাপক পতন।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১ লক্ষ ৯২ হাজারের কিছু বেশি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ফলে এ দিন সংক্রমণের হার ছিল ১৯.৩৬ শতাংশ। গত ৩১ মার্চ রাজ্যে যখন ৩৯ হাজার জন আক্রান্ত হয়েছিলেন, তখন সংক্রমণের হার ২৭ শতাংশে উঠে গিয়েছিল।

এ দিকে, মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬১ হাজার ৬০৭ জন। এত বেশি সংখ্যক মানুষ সুস্থ হওয়ার ফলে রাজ্যে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা আরও কিছুটা কমে গিয়েছে। রাজ্যে এখন মোট রোগীর সংখ্যা হল ৫১ লক্ষ ৩৮ হাজার ৯৭৩ জন। এর মধ্যে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৫ লক্ষ ৯০ হাজার ৮১৮ জন। এপ্রিলের মাঝামাঝি এই সংখ্যাটাই ৭ লক্ষে চলে গিয়েছিল।

এ দিকে মুম্বইয়ের পরিস্থিতিও দুর্দান্ত ভাবে ভালো হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় বাণিজ্যনগরীতে নতুন করে আক্রান্ত ১ হাজার ৭৯৪ জন। ৪ এপ্রিল এই সংখ্যাটাই উঠে গিয়েছিল ১১ হাজারের ওপরে। এক মাসের অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই শহরের নতুন আক্রান্ত দশ ভাগ কমে গেল। মুম্বই বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪৫ হাজার ৫৩৪ জন।

এ দিকে, মৃতের সংখ্যাও একটু একটু করে কমছে রাজ্যে। মাত্র কিছু দিন আগেই মহারাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা ন’শো ছাড়িয়ে গিয়েছিল। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গিয়েছেন ৫৪৯ জন। রাজ্যে মৃত্যুহার ১.৪৮ শতাংশ।

আরও পড়তে পারেন Bengal Corona Update: রাজ্যের সংক্রমণচিত্রে স্থিতাবস্থা অব্যাহত, সুস্থতার হারে বৃদ্ধি, ৮ জেলায় কমল সক্রিয় রোগী

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.