খবরঅনলাইন ডেস্ক: গণেশ পুজো আসছে বলে মহারাষ্ট্রে বাজার দোকানগুলিতে ভিড় বাড়ছে। মানুষ যাতে বেপরোয়া না হয়ে ওঠেন, সে কারণে ‘তৃতীয় ঢেউ এসে গেছে’ বলে হুমকির সুরে সতর্কবার্তা দিচ্ছেন মুম্বইয়ের মেয়র কিশোরী পেড়নেকর। তবে প্রকৃত পরিসংখ্যান বলছে রাজ্যে করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের কোনো ইঙ্গিত আপাতত নেই।

গত ফেব্রুয়ারির দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে মহারাষ্ট্রে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরু হয়। সেই দ্বিতীয় শুরু হওয়ার পর এই প্রথম রাজ্যে পর পর দু’দিন চার হাজারের নীচে দৈনিক সংক্রমণ ঘটল। গত সোমবার রাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছিলেন ৩ হাজার ৬২৬ জন। মঙ্গলবার আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৮৯৮ জন।

আরও একটা স্বস্তির ব্যাপার হল, রাজ্যে গত ২৮ আগস্টের পর ৫ হাজারের বেশি দৈনিক সংক্রমণ ঘটেনি। প্রতিদিনই দেড় থেকে দু’লক্ষ নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে রাজ্যে। ফলে সংক্রমণের হার ২ থেকে আড়াই শতাংশের মধ্যেই রয়েছে।

অন্যদিকে, স্বস্তির একটা খবর দিল মুম্বইও। গত এক সপ্তাহ ধরে মহারাষ্ট্রের রাজধানীতে কোভিড সংক্রমণ কিছুটা বাড়ছিল। গত সপ্তাহে সংক্রমণের হার ১ শতাংশের গণ্ডিও ছাড়িয়ে যায়। গত ২৭ জুলাই শেষ বার শহরে সংক্রমণের হার ১ শতাংশের ওপরে ছিল। তার পর এই সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ফের ১ শতাংশের ওপরে অঠে এই হার।

কিন্তু মঙ্গলবার সেটা ফের ১ শতাংশের নীচে নেমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় শহরে ৩৮ হাজার ৪৪৮টি টেস্টের বিপরীতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৫৩ জন। অর্থাৎ সংক্রমণের হার ছিল ০.৯২ শতাংশ।

তবুও মানুষকে সতর্ক থাকতে হবে। মঙ্গলবার মুম্বইয়ের মেয়র সাংবাদিকদের বলেন, “তৃতীয় ঢেউ আর আসবে, আসবে না, সে এসে গিয়েছে।” মনে করা হচ্ছে গণেশপুজোর ফলে মানুষ যাতে সতর্কতায় ঢিলে না দেন সে কারণেই এই মন্তব্যটি করেছেন তিনি।

আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুুন

কেরলে লাগাম পড়ছে কোভিডে, পর পর ৭ দিন কমল সংক্রমণের হার

দৈনিক সংক্রমণ ফের ছ’শোয় উঠলেও সংক্রমণের হারে বড়ো পতন, কলকাতার পরিসংখ্যান স্বস্তিদায়ক

কাবুলে পাকিস্তান-বিরোধী বিক্ষোভে মহিলারা, থামাতে গুলি চালাল তালিবান

২৯ মাইলে ফের ধস, কালিম্পং-সিকিমগামী যান চলাচল ব্যাহত

‘আইন সবার জন্য সমান’ বলেছিলেন ছত্তীসগঢ়ের মুখ্যমন্ত্রী, দু’দিন পরেই গ্রেফতার করা হল তাঁর বাবাকে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন