pm narendra modi

ওয়েবডেস্ক: মহাত্মা গান্ধী, বিআর অম্বেদকর বা জ্যোতিবা ফুলে নয়, ছাত্রছাত্রীদের কাছে বেশি করে পৌঁছে দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাণী। তাই ওই তিন মনিষী নয়, মোদীর বই কেনার পেছনেই বেশি খরচ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহারাষ্ট্রের বিজেপি সরকার।

পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ুয়াদের কাছে বিখ্যাত মনিষীর বাণী পৌঁছে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে মহারাষ্ট্রের শিক্ষা দফতর। সেই পরিকল্পনাকে বাস্তবায়িত করতেই বই কিনবে তারা। দেখা গিয়েছে, নরেন্দ্র মোদী বিষয়ক বইয়ের পেছনে মহারাষ্ট্র খরচ করবে ৫৯.৪২ লক্ষ টাকা। গান্ধী, অম্বেদকর এবং ফুলের বই কেনার জন্য তারা খরচ করবে যথাক্রমে ৩.২৫ লক্ষ, ২৪.২৮ লক্ষ এবং ২২.৬৩ লক্ক টাকা।

আরও পড়ুন রাজস্থানের পর শিক্ষার গৈরিকীকরণ এ বার মহারাষ্ট্রে, বাদ পড়ছে মুঘল ইতিহাস

এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেছেন মহারাষ্ট্রের শিক্ষা দফতরের এক আধিকারিক সুনীল মাগর। তিনি বলেন, “বিশেষজ্ঞ দলের সিদ্ধান্তেই সব বই বাছাই করা হয়েছে। যে হেতু তিনি মোদী, তাই আপনাদের এত প্রশ্ন জাগছে। কিন্তু আরও অনেক বই আমরা নিয়েছি।”

সরকারের এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেছে বিরোধীরা। রাজ্যের বিধান পরিষদের বিরোধী দলনেতা ধনঞ্জয় মুণ্ডে বলেন, “মোদীকে গান্ধী, অম্বেদকর এবং ফুলের থেকে বড়ো ব্যক্তিত্ব খাড়া করে আদতে ছোটোদের মনে নিজেদের রাজনৈতিক মনোভাব ঢুকিয়ে দিতে চাইছে শাসক দল।”

এই ব্যাপারে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী বিনোদ তাওড়ের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা হলেও তিনি কোনো উত্তর দেননি। তবে এটাই প্রথম নয়, এর আগেও ইতিহাসকে বদলে ফেলার একাধিক অভিযোগ উঠেছে মহারাষ্ট্রের শিক্ষা দফতরের বিরুদ্ধে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here