nitish kumar lalu yadav
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: কয়েক বছরের বিচ্ছেদের অবসান ঘটিয়ে ফের কাছাকাছি আসতে চলেছে বিহারের দুই প্রধান রাজনৈতিক দল। শনিবার বিরোধী দল আরজেডির সঙ্গে জেডি(ইউ)-র জোট গঠনের জল্পনা আরও একবার জোরালো হয়, যখন প্রবীণ আরজেডি নেতা রঘুবংশপ্রসাদ সিং জোর দিয়ে বলেন, আরজেডি-জেডি(ইউ) উভয়েই নতুন জোটের জন্য আলোচনা চালাচ্ছে। তিনি দাবি করেন, মহারাষ্ট্রের সাম্প্রতিক রাজনৈতিক সংকটের ‘পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া’ শীঘ্রই বিহারের রাজনীতিতে দেখা যাবে।

রঘুবংশ বলেন, “শীঘ্রই বিহারে রাজনৈতিক উত্থান হতে পারে। পুনর্মিলনের জন্য আরজেডি এবং জেডি(ইউ)-এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ আলোচনা চলছে এবং উভয় পক্ষেরই এ ব্যাপারে কোনো আপত্তি নেই”।

তাঁর কথায়, “মহারাষ্ট্রের রাজনীতির পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখতে পারে বিহার। মহারাষ্ট্রে শিবসেনা, এনসিপি এবং কংগ্রেস এক সঙ্গে সরকার গড়েছে, এ বার বিহারেও তেমন কিছু দেখা যাবে”। নিজের বক্তব্যে আরজেডি-জেডি(ইউ) এবং কংগ্রেস আবারও একত্র হতে পারে বলে তিনি ইঙ্গিত করেছেন। বর্তমানে জেডি(ইউ) বিহারের বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ সরকারের বড়ো অংশীদার।

তবে আরজেডি-জেডি(ইউ) জোট গত ২০১৫ সালেও এই পরীক্ষার মুখোমুখি হয়েছিল। কিন্তু সেই পরীক্ষার ফলাফল সুখকর হয়নি। যে কারণে রঘুবংশের দলের নেতা তেজস্বীপ্রসাদ যাদবও ওই ধরনের জোট-জল্পনাকে উড়িয়ে দিয়েছেন।

তেজস্বী বলেন, “আরজেডি এবং জেডি(ইউ)-এর আবার একই ট্র্যাকে আসার কোনো প্রশ্নই আসে না। এটা আর কোনো মতেই সম্ভব হবে না”। আরএলএসপি প্রধান উপেন্দ্র কুশওয়াহার প্রতি মহাজোটের শরিকদের সমর্থন প্রদর্শনের জন্য আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে তেজস্বী এ কথা বলেন।

[ আরও পড়ুন: আস্থা ভোটে ১৬৯ বিধায়কের সমর্থন পেলেন উদ্ধব ঠাকরে ]

তবে রঘুবংশের মন্তব্যের সময়কাল অন্য একটি কারণে ইঙ্গিতবাহী। জগদানন্দ সিংহ আরজেডি রাজ্য সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব গ্রহণের ঠিক কয়েকদিন পরেই রঘুবংশ এমন মন্তব্য করেন। তিনিও বলেন, এনডিএ-র মধ্যে সব কিছু ঠিকঠাক চলছে না এবং বিধানসভা নির্বাচনের সময় রাজ্যে রাজনৈতিক ‘পুনর্বিবেচনা’র সম্ভাবনা রয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন