জয়পুর: গোহত্যা করলে যাতে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়, তার জন্য কেন্দ্রকে পদক্ষেপ করতে বলল রাজস্থান হাইকোর্ট। পাশাপাশি, যাবতীয় যাঁড়জাতীয় প্রাণীকে জাতীয় পশু ঘোষণা করারও প্রস্তাব দিয়েছে ওই আদালত।

‘হিঙ্গোনিয়া গোশালা’ মামলায় ওই রায় দিয়েছে আদালত। ‘এশিয়ার শ্রেষ্ঠ গরুর আবাসস্থল’ নামে পরিচিত ওই খাটালে গত বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে ৮০০০ গরুর মৃত্যু হয়। কারণ হিসেবে দেখানো হয় অসুস্থতা ও আচমকা আঘাত।

“সংবিধানের ৪৮ এবং ৫১এ(জি) অনুচ্ছেদ মাথায় রেখে এবং আইনি সত্তা প্রদান করে গরুকে সুরক্ষা দেওয়া ও সংরক্ষিত করার স্বার্থে সরকারের উচিৎ গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করা”, রায়ে বলেছেন বিচারপতি মহেশচন্দ্র শর্মা।

আদালত বলেছে, ভারত একটি কৃষিভিত্তিক দেশ, এদেশে পশুপালনের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। রাজস্থানের মুখ্যসচিব ও অ্যাডভোকেট জেনারেলকে গরুর সুরক্ষা ও সংরক্ষণের দায়িত্ব দিয়েছে আদালত।

তাঁরা গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণা করার লক্ষ্যেও কাজ করবেন।

সাম্প্রতিক কালে পশুবাজারে গবাদি পশু বিক্রি নিষিদ্ধ করতে সার্কুলার জারি করেছে কেন্দ্র। তা নিয়ে দেশজুড়ে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে। কেরল ও পশ্চিমবঙ্গ সরকার ওই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করেছে।

চাপের মুখে কেন্দ্র মঙ্গলবার কেন্দ্র জানিয়েছে, তাঁরা ওই নির্দেশিকা থেকে মহিষকে বাদ রাখার কথা ভাবছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here