‘ক্রমবর্ধমান সন্ত্রাসবাদের জন্য দায়ী বাঘ’, অবিলম্বে জাতীয় পশুর তকমা হঠানোর দাবি

0
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: উদুপির শ্রী পেজাভার মঠের শ্রী বিশ্বেসাতীর্থ স্বামীজি ভারতের জাতীয় পশুকে বাঘকে দেশে “ক্রমবর্ধমান সন্ত্রাসবাদের জন্য” দায়ী করেলেন।

তিনি যুক্তি হিসাবে বলেন, “বাঘ ও সন্ত্রাসবাদীদের মূল বৈশিষ্ট্য একই এবং আমরা বাঘকে আমাদের জাতীয় পশু হিসাবে গ্রহণ করে ভুল করেছি”।

Loading videos...

বাঘকে জাতীয় পশুর আসন থেকে সরানোর পাশাপাশি বিকল্প প্রাণীর সন্ধানও দিয়েছেন বিশ্বেসাতীর্থ। তাঁর কথায়, “বাঘ নয়, গোরুকে করা হোক ভারতের জাতীয় পশু। গোরু যেমন ভালোবাসার প্রতীক, তেমনই নিরপরাধ প্রবণতারও প্রতীক। ফলে গোরুকে জাতীয় পশু হিসাবে যদি আমরা গ্রহণ করতাম, তা হলে এই দেশে আর কোনো সন্ত্রাসবাদী জন্মাতে পারত না”।

ফাইল ছবি

উদুপিতে ‘সন্ত সমাগম’ নামে সাধুদের একটি জমায়েতে এ কথা বলেন তিনি।

বাবা রামদেবও সাধুদের সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশে বক্তব্য রেখে তিনি বলেন, নিরামিষভোজী খাবার বৈশ্বিক উষ্ণায়নের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Ramdev
ফাইল ছবি

একই সঙ্গে রামদেব গোরু ‘জবাই’ নিষিদ্ধ করার জন্য কঠোর আইন করার প্রয়োজনীয়তার উপরও জোর দেন। বাবর থেকে ঔরঙ্গজেবের মতো শাসকদের সময়ে গোরু জবাইয়ের অস্তিত্বের কথা উল্লেখ করেন রামদেব।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন